চুয়াডাঙ্গা হাটকালুগঞ্জে প্রতিবন্ধীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে বাড়িতে হানা

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা হাটকালুগঞ্জের একটি পরিবারের ছেলে ও মাকেসহ তিনজনকে মারধর করা হয়েছে। এক প্রতিবন্ধী কিশোরীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগ তুলে ওই পরিবারেই গৃহকর্তা মিয়াজনকে ধরে আটকে রেখে পুলিশে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনাটি নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে পাল্টা পাল্টি অভিযোগ উত্থাপন নিয়ে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের হাটকলুগঞ্জের এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে একই পাড়ার রসুল মণ্ডলের ছেলে মিয়াজান হাত ধরে টানা টানি করে বলে অভিযোগ উত্থাপন করে। অভিযোগ সাজানো বলে মন্তব্য করতেই মহল্লার কিছু ব্যক্তি মিয়াজানের বাড়িতে ছুটে যায় কিছু ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটে রাত ৯টার দিকে। তারা মিয়াজানের স্ত্রী জাহানারা খাতুন ও ছেলে জাহাঙ্গীরসহ মিয়াজানের শাশুড়ি আনুরা খাতুনকে মারধর করে। ধারালো অস্ত্রের কোপে আনুরা রক্তাক্ত জখম হন। এদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। অপরদিকে মিয়াজনকে আটক করে স্থানীয় একটি স্থানে বন্দি করে। পরে পুলিশে খবর দেয়া হয়।

মিয়াজান বলেছে, পূর্ব বিরোধের জের ধরে স্থানীয় কিছু স্বার্থান্বেশী মহল বানোয়াট অভিযোগ তুলেছে। আমার বাড়িতে হামালা চালিয়ে মহিলাদের মারধরের পাশাপাশি লুটপাট করেছে। অপরদিকে প্রতিবন্ধী কিশোরের পরিবারের সদস্যরা বলেছে, শ্লীলতাহানির বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে ওঠে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *