চুয়াডাঙ্গা সদর থানা ও পৌর বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে কর্নেল কামরুজ্জামান

বিএনপিকে বাদ দিয়ে বাংলার মাটিতে কোন নির্বাচন হতে দেয়া হবে না

বিএনপি নেতা বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরামের উপদেষ্টা লে. কর্নেল (অব.) সৈয়দ কামরুজ্জামান বলেছেন, বাংলাদেশের ৯৯ ভাগ মানুষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা চাই। বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিকসহ পশ্চিমাদেশগুলো চাই বাংলাদেশে একটি অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক। কিন্তু চাই না শুধু সরকার। আর তাইতো সরকার দেশে এক তরফা নির্বাচনের দিকে এগোচ্ছে।

তিনি গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা সদর ও পৌর বিএনপির বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়সভায় এ কথা বলেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল ওহাব মল্লিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কর্নেল কামরুজ্জামান বলেন, যতো ষড়যন্ত্রই করুন না কেন? বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দল বিএনপিকে বাদ দিয়ে বাংলার মাটিতে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।

আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তেব্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি এবিএম হাসান হাসু বলেন, ৭১ সালে বাংলার মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে পাকহানাদার বাহিনীকে হটিয়েছিলো। আর ৪২ বছর পর বাংলার মানুষ এ জালিম সরকারকে হটাতে প্রয়োজনে আরও একবার যুদ্ধ করবে।

আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন- জেলা বিএনপির সাংগাঠনিক সম্পাদক সরদার আলী হোসেন, সহপ্রচার সম্পাদক রেজাউল করিম মুকুট ও জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আব্দুর জব্বার সোনা। বক্তব্য রাখেন- সদর উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি মহসিন আলী বিশ্বাস, শহর আলী, মফিজুর রহমান মনা, হাবিবুর রহমান মঙ্গল, যুবদলের জেলা কমিটির সদস্য শরিফুল আলশ বিলাস, মনিরুজ্জামান লিপটন, ইকরামুল হক, মালেক, রফিকুল, ইমদাদ কাজল, লাল্টু, হামিদ, জিলকার, আপেল, টিপু, কবির, মহিলা নেত্রী মাহমুদা বেগম, ডলি, রাহিমা খাতুন, পলি প্রমুখ। বক্তারা আগামী ১ সেপ্টম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সফলভাবে উদযাপনের জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *