চুয়াডাঙ্গা সদর তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশের রাতভর সফল অভিযান ॥ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার ॥ গ্রেফতার ৩

বেগমপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা সদরের তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশ রাতভর গড়াইটুপি ও তিতুদহ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চালিয়েছে। অভিযান চালিয়ে অপরাধমূলক কর্মকা-ের সাথে জড়িত থাকা সন্দেহে ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার করেছে দা, হেঁসো ও টর্চলাইট। গ্রেফতারকৃত তিনজনকেই শনিবার সদর থানায় সোপর্দ করেছে পুলিশ।
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ও তিতুদহ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে এবং সড়কে গত এক মাসে বেশ কয়েকটি ডাকাতি, ছিনতাই ও চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরি ডাকাতি ও ছিনতাই প্রতিরোধে গ্রামে গ্রামে গঠন করা হয়েছে রাত পাহারার দল। তারপরও ঘটেছে অপরাধমূলক কর্মকা-। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যারাতে গড়াইটুপি-সড়াবাড়িয়া সড়কে ঘটে ডাকাতি ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা। ডাকাতদল গরু ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে মারধর করে প্রায় ২ লাখ টাকা লুট করে নেয়। ধারাবাহিক এসব ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করতে শুক্রবার রাতভর তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই লিটন গাজী, এএসআই লিয়াকত আলী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালান ইউনিয়ন দুটির বিভিন্ন গ্রামে। পুলিশ চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের সাথে জড়িত থাকা সন্দেহে গ্রেফতার করেন খাসপাড়া গ্রামের আ.মজিদ ম-লের ঘরজামাই আব্দুর রশিদ (৩৫), গবরগাড়া গ্রামের আ.খালেক শিকদারের ছেলে আ.হান্নান শিকদার (৪০) ও ছিলন্দিপাড়ার মোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে ইব্রাহিমকে (৫০)। পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তিতে উদ্ধার করেছে ছিনতাই ও ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত ১টি রামদা, ১টি বড় হেঁসো ও ১টি বড় টর্চলাইট। পুলিশ বলেছে, গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেশ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। গ্রেফতারকৃত রশিদ, হান্নান ও ইব্রাহিমকে গতকাল শনিবার সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
এদিকে একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ঝিনাইদহ জেলার মোহাম্মদপুর, গোবিন্দপুর, ধোপাবিলা, চুয়াডাঙ্গা, ভোমরাডাঙ্গা ও সুমিরদি গ্রামের একটি চক্র দিনের বেলায় ছদ্মবেশে মাইক্রো ও আলমসাধুতে করে বেপারি সেজে গড়াইটুপি গ্রামের বিভিন্ন গ্রামে আসে। বিশেষ করে  মোহাম্মদপুর গ্রামের অদ্যাক্ষর ‘শ’ নামের জনৈক ব্যক্তিকে ওই সমস্ত লোকের সাথে দেখা যায়। তিনি বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে, গরু, কলা কেনার অজুহাতে ঘুরিয়ে নিয়ে বেড়ায়। পুলিশ একটু তৎপর হলেই বিষয়টি জানতে পারবে।
উল্লেখ্য, গত একমাসে গড়াইটুপি ইউনিয়নে ছোটবড় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে ৭টি, একই ইউনিয়নের গড়াইটুপি-সড়াবাড়িয়া সড়কে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে ৫টি, গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে ৮টি এবং বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে ১টি। গত ৯ এপ্রিল চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহ জেলা পুলিশ গড়াইটুপি ও তিতুদহ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে যৌথ অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করে। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি (অপারেশন) আমির আব্বাস বলেন, গ্রেফতাকৃত তিনজকে আজ রোববার আদালতে সোপর্দ করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *