চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সড়কে মরা ও ঝূঁকিপূর্ণ ২১টি গাছ নিলাম বিক্রি করেছে : গাছ কাটা শুরু

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সড়কে মরা ও ঝূঁকিপূর্ণ ২১টি গাছ নিলাম শেষে কার্যাদেশের আদেশ দিয়েছে। নিযুক্ত ঠিকাদার গতকাল মঙ্গলবার থেকে গাছ কাটার কার্যক্রম শুরু করেছেন। ২১টি মরাগাছ বিক্রির মূল্য বাবদ সরকারি কোষাগারে মোট ১৫ লাখ ৮১ হাজার ৬০০ টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের চুয়াডাঙ্গা অংশে রেইনট্রি ৬টি, মেহেগনি ৭টি, নিমগাছ ১টি ও ভাটাম গাছ ১টি এবং চুয়াডাঙ্গা-জীবননগর সড়কে চুয়াডাঙ্গা অংশে সওজ অফিস থেকে হাটকালুগঞ্জ পর্যন্ত ৬টি শিশু গাছ নিলামে গত ২১ আগস্ট সর্ব্বোচ দরদাতা হিসেবে মনিরামপুরের কামাল মিয়া ও বুজরুকগড়গড়ির সৈয়দ উদ্দিন পৃথকভাবে নির্বাচিত হন। মনিরামপুরের কামাল মিয়া ১৫টি গাছ নিলামে ক্রয় করেন ভ্যাট ও আয়করসহ ১২ লাখ ৬৬ হাজার ৬০০ টাকায় এবং বুজরুকগড়গড়ির সৈয়দ উদ্দিন ৬টি শিশু গাছ নিলামে কেনেন।

জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কবীরুল হাসান গত ২২ সেপ্টেম্বর ২১টি মরা গাছ কাটার কার্যাদেশ দিয়েছেন। নিযুক্ত ঠিকাদার কার্যাদেশ গ্রহণও করেছেন। এ ব্যাপারে ঠিকাদার কামাল মিয়া জানান, কার্যাদেশ পাওয়ার পর জেলা পরিষদের কর্মকর্তারা গত রোববার মরা গাছ দেখিয়ে দিয়েছেন এবং ওই সময় স্থানীয় এলাকাবাসীরা উপস্থিত ছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার দৌলতদিয়াড় থেকে গাছ কাটা শুরু করেছি। এ ব্যাপারে ঠিকাদার সৈয়দ উদ্দিন জানান, চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কে গাছ কাটা শেষ হলে জীবননগর সড়কে গাছ কাটা শুরু করবো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *