চুয়াডাঙ্গায় সুরকানন একাডেমির মাসিক গানের আসর সুরের খেয়া : মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু সংবর্ধিত

খাইরুজ্জামান সেতু: সুরেলা কণ্ঠের শিল্পীদের যাদুকরী পরিবেশনার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হলো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মাসিক গানের আসর সুরের খেয়া। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা শ্রীমন্ত টাউন হলে নিউ করবী ইলেকট্রনিক্সের আয়োজনে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সুর কানন একাডেমির শিল্পী আর অতিথি শিল্পীদের পরিবেশনায় উপস্থিত দর্শক শ্রোতারা এ অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।
দর্শক শ্রোতাদের চাহিদা মেটানোর জন্য অনুষ্ঠানে রাখা হয়েছিলো নতুন ও পুরোনো দিনের গান। সাথে অনুষ্ঠানের বাড়তি মাত্রা যোগ করে নৃত্য শিল্পীদের নৃত্য। তবে বেশি প্রশংসা কুড়ান চুয়াডাঙ্গা চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ড. এবিএম মাহমুদুল হকের পরিবেশনায় দুটি হারানো দিনের গান। চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট অতিথির আসন থেকে উঠে যখন ভরাট কণ্ঠে গান পরিবেশন করেন তখন দর্শকদের হাততালিতে মুখরিত হয়ে ওঠে শ্রীমন্ত টাউন হল। চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ড. এবিএম মাহমুদুল হক গান পরিবেশন করার আগে সুরকানন একাডেমির ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন আমি মনে করি একাডেমির কী বোর্ডিষ্ট অন্তর একজন আন্তর্জাতিক মানের কীবোর্ডিষ্ট। কারণ এর আগেও তার পারফরমেন্স আমি দেখেছি। মঞ্চের বেলুন ও লাইটসহ গোছালো সাজসজ্জা যেন অনুষ্ঠানের এক অন্য রকম পরিবেশ তৈরি করে দেয়। সেই সাথে কন্ঠ শিল্পী নুসরাত জাহান করবী নতুন প্রজন্মকে মাতোয়ারা করে বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় কয়েকটি গান পরিবেশন করেন। বিল্লাল ও তার দলের নৃত্য কিছুক্ষণের জন্য হলেও দর্শকদের এক ভিন্ন স্বাদ দেয়। এছাড়াও গান পরিবেশন করেন আশাবুল হক, একরামুল হক খলিল, নাসিমা কবীর ও তৃপ্তিসহ অনেকে। অনুষ্ঠানের মাঝে চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপুকে সুর কানন একাডেমীর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। এ সময় তিনি বলেন আমাকে সংবর্ধিত করে একাডেমি আবারও ঋণী করে দিলো। কারণ এর আগেও আমি যখন ছাত্রলীগ নেতা ছিলাম তখন সংগঠনটি কলেজের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যথেষ্ট সহযোগিতা করেছে। এজন্য একাডেমির পরিচালক খন্দকার আহসানুল হক কবীরসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অধ্যক্ষ সিদ্দিকুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা পৌর কলেজের অধ্যক্ষ শাহাজাহান আলী, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সেক্রেটারি মুন্সী জাহাঙ্গীর আলম মান্নান ও সাবেক সেক্রেটারি ওয়ালিউর রহমান মালিক টুল্লুসহ অনেকে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *