চুয়াডাঙ্গায় বাংলালিংকের নেটওয়ার্ক বিড়াম্বনার শিকার গ্রাহকরা

 

খাইরুজ্জামান সেতু: চুয়াডাঙ্গায় বাংলা লিংক নেটওয়ার্ক সমস্যায় পড়েছেন গ্রাহকরা। এ কারণে নানা রকম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তারা। চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের জীবননগর বাসস্ট্যান্ড থেকে নতুন জেলখানা এলাকার প্রায় ছয় কিলোমিটারজুড়ে কয়েক হাজার বাংলালিক গ্রাহক মোবাইলে কোনো যোগাযোগ করতে পারছেন না। গত সোমবার সন্ধ্যা থেকে এ সমস্যা শুরু হলেও বাংলালিংক কর্তৃপক্ষ কোনো প্রতিকারের উদ্যোগ নেয়নি।

বিড়াম্বনার শিকার অনেক বাংলালিংক গ্রাহক ক্ষোভের সুরে জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের প্রাণকেন্দ্রে এ সমস্যার কারণে মোবাইলে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। এ এলাকায় প্রায় দু হাজার থেকে তিন হাজার বাংলালিংক গ্রাহক রয়েছেন। গত সোমবার সন্ধ্যা থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই এলাকার বাংলালিংক গ্রাহকরা কোথাও ফোন করতে পারছেন না। ফোন করতে গেলে আন অ্যাবল টু কানেক্ট, নো সার্ভিস, নো নেট কাভারেজ আবার কোনো মোবাইলে নো সিগন্যাল লেখা দেখা যাচ্ছে। আবার যাদের বিকাশ কিংবা ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং আছে তারা রয়েছেন আরো সমস্যার মধ্যে। তারা অন্য এলাকায় গিয়ে প্রেরণ বা পৌঁছুনোর ম্যাসেজ নিশ্চিত করে যেতে হচ্ছে। নাম প্রকাশে এক বিকাশ ব্যবসায়ী জানান, ‘পাঁচ থেকে সাতবার অন্য টাউয়ারের আওতায় গিয়েছি মোবাইলে টাকার ম্যাসেজ নিশ্চিত করার জন্য।’

এ বিষয়ে বাংলালিংকের ১২১ নম্বরে রাত ১১টার দিকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে জানতে চাওয়া হলে তানভীর নামে এক কাস্টমার ম্যানেজার জানান ‘আমি এই সমস্যার কথা নেটওয়ার্ক ডিপার্টমেন্টকে জানাবো। আপানাকে ৩০ মিনিটের মধ্যে ফোন করা হবে।’ আধাঘণ্টার মধ্যে রুবেল নামে আরেকজন কাস্টমার সার্ভিস থেকে বলছি বলে জানান ‘এখন রাত। তাই যোগাযোগ করা সম্ভব নয়। কাল আপনাকে ফোন করা হবে।’

রাত সাড়ে ১২টার দিকে এই প্রতিবেদকের নম্বরে বাংলালিংক কাস্টমার সার্ভিস থেকে অজয় পরিচয় দিয়ে জানান ‘আমরা আপনার বিষয়টি টেকনিক্যালটিমের কাছে পৌঁছে দিয়েছি। আশা করছি খুব শিগগিরই সমস্যা সমাধান হবে। আমরা আপনার সাথে আবার পরে যোগাযোগ করে জানাবো কী কারণে এ সমস্যা হচ্ছে।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *