চুয়াডাঙ্গায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভিক্ষুকদের মাঝে বিভিন্ন উপকরণ বিতরণকালে জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস

পুনর্বাসনের মাধ্যমে চুয়াডাঙ্গা জেলাকে ভিক্ষুকমুক্ত করা হবে

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গাকে ভিক্ষুকমুক্ত করতে কাজ করে যাচ্ছে জেলা প্রশাসন। এরই অংশ হিসেবে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পুনর্বাসিত ভিক্ষুকদের প্রনোদনার লক্ষ্যে উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আনজুমান আরা, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জসিম উদ্দিন, প্যানেল মেয়র একরামুল হক মুক্তা, আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক (চ.দা) এসএমএ সানী ও দামুড়হুদা উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা ছানোয়ার হোসেন। উপস্থিত ছিলেন নেজারত ডেপুটি কালেক্টর তরিকুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার ফখরুল ইসলাম, সুচিত্র রঞ্জন দাস, টুকটুক তালুকদার, পাপিয়া আক্তার, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মেহেদী মাসুদ, নাজির আইনাল হক প্রমুখ। পরে ৪৪ জন ভিক্ষুককের মাঝে ছাগল, সেলাই মেশিন, চালসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ। এসময় তাদের যাতায়াত ভাড়া বাবদ প্রত্যেককে ১শ’ টাকা করে প্রদান করা হয়।

জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস জানান, খুলনা বিভাগকে ভিক্ষুকমুক্ত করতে বিভাগীয় কমিশনার বিশেষ উদ্যোগ হাতে নিয়েছেন। এরই অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা জেলার বিভিন্ন স্থানে ভিক্ষুকদের পুনর্বাসন করতে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। সম্প্রতি ৪৪ জন ভিক্ষুকের তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। যাদের অনেকেই ভাসমান ও বিভিন্ন উপজেলার। তাদের বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে পুনর্বাসন করা হলো। এর আগে জেলার ১ হাজার ৬শ’ ৯৫ জন ভিক্ষুককে বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে পুনর্বাসন করা হয়েছে। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। ক্রমান্বয়ে জেলার বাকি ভিক্ষুকদের তালিকা তৈরি করে তাদেরকেও পুনর্বাসন করা হবে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি জেলার বিভিন্ন মসজিদ ও স্থান থেকে ভাসমানসহ ৪৪ জন ভিক্ষুকের তালিকা প্রস্তুত করা হয়।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *