চুয়াডাঙ্গায় জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল

 

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: আব্দুল কাদের মোল্লাসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মুক্তি, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা, সংবিধান পুনর্বহাল ও সরকারের পদত্যাগের দাবিতে গতকাল বৃহস্পতিবার চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেছে জামায়াত-শিবির কর্মীরা।

এদিকে চুয়াডাঙ্গা শহর জামায়াতের উদ্যোগে শিবিরের সহায়তায় মিছিলটি চুয়াডাঙ্গা জীবননগর বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হয়ে কোর্টমোড়ে শেষ হয়। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা জেলা জামায়াতের শুরা সদস্য অ্যাড. আসাদুজ্জামান এবং পৌর আমির মফিজুর রহমান জোয়ার্দ্দার। বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে বলেন- অবিলম্বে জামায়াতের শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ সারাদেশে গেফতারকৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি দিন। তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহাল করে সময়মতো ক্ষমতা ছেড়ে দিন।–প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

গতকাল বৃহস্পতিবার দামুড়হুদা হাউলী ইউনিয়ন জামায়াতের  উদ্যোগে কেন্দ্র ঘোষিত অনুযায়ী বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন জেলা সেক্রেটারি হাউলী ইউপি চেয়ারম্যান মাও. আজিজুর রহহমান। তিনি বলেন, সরকার জামায়াতকে নেতৃত্বশূন্য করার জন্য জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মোল্লাসহ সংগঠনের র্শীষ নেতৃবৃন্দকে হত্যা করার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। সরকার মূলত দেশ থেকে ইসলাম নির্মূলের চক্রান্ত করছে। রাষ্ট্র পরিচালনার ব্যর্থতা ঢাকার জন্য সরকার একের পর এক হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে চলছে। সরকার জুলুম-নির্যাতন নিপীড়ন চালিয়ে ক্ষমতা র্দীঘায়িত করার যে ষড়যন্ত্র করছে জনগণ তা কখনো বাস্তবায়ন হতে দেবে না। উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলার শিবিরের সভাপতি হাফেজ বেলাল হোসেন, দামুড়হুদার থানা আমির নায়েব আলী আবু হানিফ, দামুড়হুদা জামায়াতের সেক্রেটারি মাও. আব্দুল গফুর, দামুড়হুদা সদর ইউপি চেয়ারম্যান শরিফুল আলম, হাউলী ইউনিয়ন আমির নজরুল ইসলাম, সেক্রেটারি ইকরামুল ইসলাম, শিবিরের শিবিরের পৌর সভাপতি সেলিম, জিয়া প্রমুখ।–প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, মাও. আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাইদীসহ যুদ্ধাপরাধীদের মিথ্যা অভিযোগে অবৈধ ট্রাইব্যুনালের দেয়া রায় বাতিল এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে গতকাল বৃহস্পতিবার জীবননগর উপজেলা জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবির বিক্ষোভ মিছিল করে। জামায়াতের উপজেলা আমির খলিলুর রহমানের নেতৃত্বে ভোর ৬টার দিকে কালীগঞ্জ সড়ক থেকে এ বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বাসস্ট্যান্ড এলাকা ঘুরে হাইস্কুল মসজিদের সামনে শেষ হয়।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, গতকাল ভোরে ফজর নামাজ শেষে আলমডাঙ্গা শহরে জামায়াত-শিবির ঝটিকা মিছিল বের করে। যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তির দাবিতে চারতলার মোড় থেকে হঠাত শুরু হওয়া মিছিলটি খুব দ্রুত হাফিজ মোড়ের দিকে ছুটে যায়। মিছিল থেকে মাও. সাঈদীসহ যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেয়া হয়।

আমঝুপি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল কাদের মোল্লাসহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মী আলেমগণের মুক্তি, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল ও সরকারের পদত্যাগের দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মেহেরপর সদর উপজেলার আমঝুপিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেলা জামায়াত-শিবির। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সদর উপজেলা আমির রুহুল আমিনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলটি আমঝুপি বাজার থেকে শুরু মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা সড়ক প্রদক্ষিণ করে আমঝুপি হাটে গিয়ে শেষ হয়। মিছিল শেষে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি তারেক মাসুদ সাইফুল, উপজেলা জামায়াতের আমির রহুল আমিন। মিছিলে আমঝুপি ইউনিয়ন আমির আলমগীর হোসেন তানশেন, পিরোজপুর ইউনিয়ন আমির আল-আমিন, জামায়াত নেতা আবুল হোসেন, আব্দুল জব্বারসহ জামায়াত-শিবিরের অসংখ্য নেতা-কর্মী   অংশগ্রহণ করে।

Leave a comment

Your email address will not be published.