চুয়াডাঙ্গায় খালুর বাড়ি খুঁজে না পাওয়া শিশু আব্দুল্লাহ এখন পুলিশ হেফাজতে

স্টাফ রিপোর্টার: বয়স আর কতোই হবে। টেনেটুনে ১১ বছর। চোখে মুখে কথা। অথচ চুয়াডাঙ্গা বাস টার্মিনালে ঘুরছিলো উদ্দেশ্যহীনভাবে। ফলে ১১ বছরের শিশুকে টহল পুলশ সদর থানায় নিতে বাধ্য হয়।
শিশু পরিচয় দিতে গিয়ে বলেছে, নাম আব্দুল্লাহ। বাবা সিরাজুল ইসলাম ড্রাইভার। আগে বাড়ি ছিলো মাদারীপুরে। দীর্ঘদিন দরে ঢাকা মিরপুরের সনি সিনেমাহলের পেছনের বাড়িতে বসবাস করে আসছে। গতপরশু রাত ১১টার দিকে গাবতলী থেকে কোচে চড়ে চলে আসে চুয়াডাঙ্গায়। ভেবেছিলো চুয়াডাঙ্গার মুদি দোকানি সাইদ, খালা শহিদার সাথে দেখা করতে পারবে। খালা-খালুর ঠিক-ঠিকানা না জানার কারণেই সে ভোরে চুয়াডাঙ্গা বাস টার্মিনালে নেমে ঘুরতে শুরু করে। বেলা বাড়লে খিদে বাড়ে। চেয়ে চিনতে খেলেও সন্ধ্যার পর সে পড়ে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে। এ অবস্থায় সদর থানার এসআই মিজানুর রহমান তাকে টার্মিনাল থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়েছে। খালুর ঠিকানা না পেলে কিংবা ওর পিতার ঠিকানায় যোগাযোগ করা সম্ভব না হলে আদালতের মাধ্যমে নিরাপদ হেফজতে রাখার ব্যবস্থা করা হতে পারে। অবশ্য শিশু আব্দুল্লাহ বারবারই বলেছে, আমাকে ছেড়ে দিন, আমি ঠিক আমাদের বাড়িতে ফিরে যেতে পারবো। শিশুর কথায় ভরসা পাচ্ছে না পুলিশ। তাছাড়া সেটা আইন সিদ্ধও নয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.