চুয়াডাঙ্গায় কৃমিনাশক সপ্তার উদ্বোধন

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন স্থানে জাতীয় কৃমিনাশক সপ্তার উদ্বোধন করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, আলমডাঙ্গা, দামুড়হুদা ও শঙ্করচন্দ্রের বিভিন্ন স্থানে গতকাল মঙ্গলবার সপ্তাব্যাপি কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

চুয়াডাঙ্গায় জাতীয় কৃমিনাশক সপ্তার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে ঝিনুক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সপ্তাব্যাপি এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক দেলোয়ার হোসাইন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা পৌরমেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, প্যানেল মেয়র সাইফুল আরিফ বিশ্বাস লিটু, ঝিনুক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেবেকা সুলতানা, পৌর কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম মনি প্রমুখ।

জীবননগর ব্যুরো: গতকাল মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গা জীবননগর উপজেলায় জাতীয় কৃমিনাশক সপ্তার উদ্বোধন করা হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তূজা সকালে দৌলৎগঞ্জ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করেন। উপজেলার উথলী ইউনিয়নের খয়েরহুদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ উদ্দীন, সীমান্ত ইউনিয়নের শাখারিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, রায়পুর ইউনিয়নের রায়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান তাহাজ্জত হোসেন ও আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নের আন্দুলবাড়িয়া সরকারি বালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শাখাওয়াৎ হোসেন ইউনিয়ন পর্যায়ে এ সপ্তার উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষে ছাত্রীছাত্রীদের মুখে একটি করে কৃমিনাশক ট্যাবলেট তুলে দেন। এছাড়াও উপজেলার বাঁকা ও হাসাদাহ ইউনিয়নে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা এ সপ্তার উদ্বোধন করেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আবু হাসানুজ্জামান নূপুর, উপজেলা সেনেটারি ইন্সপেক্টর আবু আনসারী, পৌর সেনেটারি ইন্সপেক্টর জাহিদুর রহমান, স্বাস্থ্য পরিদর্শক শরিফুল ইসলাম ও পৌর টিকাদান সুপারভাইজার জামাল উদ্দিন প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। উপজেলার ১৫১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ২৬ হাজার ৮৮৭জন শিক্ষার্থীকে ভরা পেটে একটি করে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হচ্ছে। আগামী শনিবার পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে বলে সংশ্লিষ্টসূত্রে জানানো হয়েছে।

ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা সদরের শঙ্করচন্দ্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের মাঝে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো কর্মসূচির উদ্বোধন করেন শঙ্করচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান। এ সময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার সোহেল আহাম্মেদ। উপস্থিত ছিলেন শঙ্করচন্দ্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক গোলাম মোস্তফা, ইউপি সদস্য শওকত আলী প্রমুখ। উল্লেখ্য, সাত দিনব্যাপি শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়নের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে এ কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হবে।

দামুড়হুদা প্রতিনিধি জানিয়েছেন,  দামুড়হুদায় স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার জয়রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এক স্কুলছাত্রীকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর মধ্যদিয়ে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. আবুল হোসেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর জাহান, সেনেটারি ইন্সপেক্টর শরীফ মোহাম্মদ আ. মতিন, স্বাস্থ্য পরিদর্শক (ইনচার্জ) আবুল কাশেম, কামাল উদ্দিন, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক রমজান আলী, স্বাস্থ্য সহকারী আসমত আরা, জান্নাতুল ফেরদৌস, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা শামিমা আক্তার, সহকারী শিক্ষিকা নাজমা আক্তার, ফেরদোসী বেগম, সেলিনা আক্তার, শিক্ষক আশরাফ আলী প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আলমডাঙ্গা ব্যরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সের আয়োজনে উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের ৩২৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫ থেকে ১২ বছর বয়সী শিশুদের গতকাল মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হয়েছে। এ উপলক্ষে আলমডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে হারদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর উদ্বোধন করেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. আবু মোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনজুমান আরা। আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পৌর মেয়র মীর মহিউদ্দিন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কৃমি সপ্তার উদ্বোধন করেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডামোশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কৃমি সপ্তার উদ্বোধন করেন। এ সময় হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এসআই নিজাম উদ্দিন, এইচআই ইউছুপ আলী, আনিচুর রহমান, আজিজুর রহমান চৌধুরী, রবিউল হক চৌধুরী, আব্দুস সামাদ, মুফতি নুর রহমান, শামসুজ্জামান, মহাবুল হোসেন, প্রধান শিক্ষক রেজাউল মোস্তফা প্রমুখ। উপজেলায় কৃমি সপ্তার প্রথম দিনে ৫০ হাজার ৯শ ৪০ জন শিশুকে মেবেনডাজল কৃমি বড়ি খাওয়ানো হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *