চুয়াডাঙ্গার বড়সলুয়া গ্রামে জমজমাট জুয়োর আসর : ধ্বংসের পথে যুবসমাজ : বাড়ছে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বড়সলুয়া গ্রামের বিভিন্ন মাঠে বসছে জুয়ার আসর। জুয়োর আসরে অংশ নিয়ে ধ্বংস হচ্ছে যুবসমাজ। আবার অনেকেই টাকা পয়সা স্বর্ণালঙ্কার হারিয়ে হচ্ছে সর্বস্বান্ত। জুয়োর বোর্ডের টাকা জোগাতে এলাকায় বাড়ছে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড।

এলাকাবাসীর অভিযোগে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের বড়সলুয়া গ্রামের ইদবার মণ্ডলের ছেলে ইলিয়াস হোসেনর নেতৃত্বে গ্রামের বিভিন্ন ভুট্টাক্ষেতে বসানো হচ্ছে জমজমাট জুয়োর আসর। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিশেষ ব্যবস্থায় এ জুয়োর আসর পরিচালিত হয়ে থাকে। জুয়োর আসর নিরাপদে চালানোর জন্য রাখা হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। এর মধ্যে জুয়োর আসরের কাছাকাছি উঁচুগাছের মগডালে পাহারাদার নিয়োগ, জুয়াড়িদের বসা এবং পানি খাবার ও বিড়ি সিগারেট জোগান দিতেও রাখা হয়েছে আলদা লোক। গাছের মগডালে বসে থাকা পর্যবেক্ষক চারদিকে দৃষ্টি থাকে। সাথে থাকে মোবাইলফোন। আশপাশ দিয়ে কোনো অচেনা লোক আসতে দেখলেই মোবাইলফোনে সতর্কবার্তা পৌছে দেয়া হয় জুয়োর আসরের পরিচালক ইলিয়াস হোসেনের কাছে। আর বার্তা পেয়ে জুয়াড়িরা সাবধান হয়ে যায়। এদিকে এ জুয়ার আসরে প্রতিদিন উঠতি বয়সী যুবকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নিয়ে নিঃস্ব হচ্ছে। জুয়োর বোর্ডে টাকা হেরে পারিবারিকভাবে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। আবার অনেকেই জুয়োর বোর্ডের টাকা জোগান দিতে জড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে।

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা গোয়েন্দা শাখার এক কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জুয়োর আসর বসার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, জুয়োবোর্ডের পরিচালকসহ জুয়োড়িদের ধরার চেষ্টা চলছে। তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই আ. রশিদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জুয়াড়িদের ধরার জন্য এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে জুয়োরবোর্ড পরিচালনাকারী ইলিয়াস হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, গতকাল থেকে জুয়োর আসর বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *