চুয়াডাঙ্গার বড়শলুয়ায় ভাতিজার হাতে চাচার মৃত্যুর ঘটনা ১২ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি কাউকে

0
32

 

বেগমপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা তিতুদহের বড়শলুয়া গ্রামে ভাতিজার বাঁশের লাঠির আঘাতে চাচার মৃত্যুর ঘটনা ১২ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। চলছে আপোষ মীমাংসার প্রক্রিয়া।

জানা গেছে, গত ১২ অক্টোবর শনিবার রাত ১০ টার দিকে বসত ভিটের জমি কেনা নিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের বড়শলুয়া মোষতলাপাড়ার মান্নানের ছেলে তরিকুল বাঁশের লাঠি দিয়ে চাচা হান্নানের (৫৫) মাথায় আঘাত করে। ঘটনার ২৪ ঘন্টার মাথায় চাচা হান্নানের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় সালিশ বৈঠকের প্রক্রিয়া করলে বেকে বসে অপর ভাই কাশেম। কাশেম বাদি হয়ে ভাই আ.মান্নান ও ভাতিজা তরিকুলের বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার ১২ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এ বিষয়ে এ মামলার তদন্তকারী অফিসার চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি (তদন্ত) ফারুক হোসেন বলেন, মামলার তদন্ত চলছে এবং আসামীদের গ্রেফতারের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য গত ১২ অক্টোবর ভিটেজমি কেনাবেচা নিয়ে চুয়াডাঙ্গার বড়শলুয়া গ্রামে বিশারত আলীর বাড়িতে বসে পারিবারিক সালিশ বৈঠক। এ সালিশ বৈঠকে ভাতিজা তরিকুলের লাঠির আঘাতে চাচা হান্নান গুরুত্বর আহত হয়। প্রথমে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং সেখান থেকে ঢাকায় নেয়ার পথে টঙ্গীর মির্জাপুর নামক স্থানে তার মৃত্যু হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here