চুয়াডাঙ্গার ফুলবাড়িতে সর্প দংশনে স্কুলছাত্রী অন্তরার মৃত্যু

ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি: সর্প দংশনে মারা গেলো স্কুলছাত্রী অন্তরা। সে চুয়াডাঙ্গা সদরের শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়নের ফুলবাড়ি গ্রামের আইনাল হকের মেয়ে ও ডিঙ্গেদহ সোহরাওয়ার্দ্দী স্মরণী বিদ্যাপীঠের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী। এ ব্যাপারে মৃত অন্তরার পিতা ফুলবাড়ী গ্রামের আইনাল হক জানান, গতকাল শনিবার সন্ধ্যার সময় আকাশে মেঘ দেখে খড়ি তোলার জন্য রান্নাঘরের নান্দার পাশে বস্তা আনতে গেলে অন্তরাকে সাপে কামড়ায়। রান্না ঘর থেকে বের হয়ে এসে অন্তরা তাকে জানায় রান্নাঘরের ভেতর থেকে কিসে যেন তার ডান পায়ের বুড়ো আঙুলটি গিলে নিয়েছে। তাড়াতাড়ি এসে দেখে তার পায়ের আঙুলে ৪টি দাঁতের দাগ। ঝর ঝর করে রক্ত বের হচ্ছে কামড়ানোর স্থান দিয়ে। কিছুক্ষণের মধ্যে অন্তরা বলতে থাকে তার সমস্ত শরীর অবশ হয়ে আসছে। অবস্থা খারাপ দেখে সাথে সাথে মোটরসাইকেলযোগে অন্তরাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া। এ সময় চিকিৎসক আবুল হোসেন বলেন, হাসপাতালে অ্যান্টিস্নেকভেনম নেই। বাজার থেকে কিনে আনতে হবে। তখন অন্তরায় ভাই সেনা সদস্য সুমন বাজারের দোকান থেকে অ্যান্টিস্নেকভেনম কিনে পুশ করে এবং শরীরে স্যালাইন চলতে থাকে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক অন্তরাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। অন্তরার মৃতদেহ বাড়িতে নেয়া হলে নেমে আসে শোকের ছায়া। নিকটজন ও স্কুলের সহপাঠীদের কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে বাড়ির আশপাশ। আজ সকাল ১০টায় গ্রামের কবরস্থানে তার দাফন করা হবে। দুই ভাই বোনের মধ্যে অন্তরা ছোট।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *