চুয়াডাঙ্গার নয়মাইলে গৃহবধূর শ্লীলতাহানির অভিযোগে যুবক আটক

 

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদরের নয়মাইল বাজারপাড়ার এক গৃহবধূর শ্লীলতাহানির অভিযোগে ভুলটিয়ার তোতা নামের এক যুবকে আটক করা হয়েছে। তাকে বেধড় প্রহার করে পুলিশের হাতে সোর্পদ করা হয়। পুলিশ ও নয়মাইল বাজার সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদরের কুতুবপুর ইউনিয়নের ভুলটিয়া ওপারপাড়া গ্রামের জবেদ আলির ছেলে তোতা মিয়া কায়েত (৩৫) নয়মাইল বাজারপাড়ার হাফিজুর হকের স্ত্রীকে একা পেয়ে তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। হাফিজুর হকের স্ত্রী আর্তচিকিৎকার দিলে নয়মাইল বাজারসহ আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে হাতে নাতে আটক করে তোতাকে। এসময় হাফিজুর তার স্ত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে তোতাকে বেধড়ক প্রহার করে। খবর দেয়া হয় সরোজগঞ্জ পুলিশ ক্যাম্পে। নয়মাইল হাফিজুরের বাড়ি থেকে তোতাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে সরোজগঞ্জ পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম জানান, ভুলটিয়ার তোতা মিয়ার নয়মাইল হাফিজুর রহমানের বাড়ির পাশে বাঁশঝাড় রয়েছে। বাঁশঝাড়ের বাশ কেন্দ্র করে হাফিজুর রহমান তোতাকে মারধর করেন। তোতার হাতে মাথায় প্রায় ১৩টি সেলাই দেয়া হয়। গ্রামবাসীসহ চেয়ারম্যান ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে মীমাংসা করার চেষ্টাও করা হয়। কিন্তু সুফল পাওয়া যায়নি।

নয়মাইল বাজারের এক ইটভাটামালিক জানান, হাফিজুরের স্ত্রীর শ্লীলতাহানির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *