চুয়াডাঙ্গার ঠাকুরপুরে ইভিটিজিং করায় সোনেক্সের ৪ শ্রমিক গণপিটুনির শিকার

 

উজ্জ্বল মাসুদ: যৌন অভিযোগে নির্মাণাধীন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের কর্মরত শ্রমিক গণপিটুনির শিকার হয়েছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, চুয়াডাঙ্গা জেলার শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়নের ঠাকুরপুর গ্রামসংলগ্ন জাফরপুর-নূরনগর গ্রামের মধ্যবর্তী স্থানে নির্মিত হচ্ছে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের ভবন। এর নির্মাণের দায়িত্ব পেয়েছেন যশোরের সোনেক্স ইন্টারন্যাশনাল। নির্মাণাধীন ভবনে কর্মরত শ্রমিকরা প্রতিনিয়ত স্কুল-কলেজগামী ছাত্রীদের যৌনহয়রানি করে। এ ছাড়া জাফরপুর মোল্লাপাড়া এবং ঠাকুরপুর গ্রামের মেয়েদেরকেও নানাভাবে টোন করে তারা। গতকাল বুধবারও ঠাকুরপুর গ্রামের মেয়েদের ইভটিজিং করলে তাদের নিষেধ করা হয়। পরে সন্ধ্যায় বহিরাগত লোকসহ ১৫/২০ জন নিয়ে ঠাকুরপুর গ্রামবাসীর ওপর তারা হামলা করলে গ্রামবাসী তাদের গণপিটুনি দেয়। এতে নির্মাণাধীন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ভবনে কর্মরত শ্রমিক মাগুরা জেলার গোবরা গ্রামের মোটুক মোল্লার ছেলে রুবেল ইসলাম (২২)’ একই গ্রামের সোরাব মোল্লার ছেলে আলামিন (২১), ঝিনাইদহ মহেশপুরের জুয়েল (২০) ও একই এলাকার সাইদুর (১৯) আহত হয়। এতে কয়েকজন গ্রামবাসীও আহত হয়। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এসআই কাইয়ুম সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.