চুয়াডাঙ্গার ঝাঁজরি গ্রামে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর পরিবার বিপাকে

প্রহসনের বিয়ে করে রেহায় পেতে মরিয়া অভিযুক্ত জাহিরুল

 

বেগমপুর প্রতিনিধি: জাহিরুল ও তার প্রভাবশালী পিতা শুরু করেছেন নতুন নাটক। স্কুলছাত্রীর অনাগত সন্তান নষ্ট করলেই বিয়ে হবে বলে প্রস্তাব দিয়েছে। গুটি কয়েক অসাধু মাতবরকে ম্যানেজ করেই এ পথে হাঁটছে প্রভাবশালী ফজু। স্কুলছাত্রী ও তার হতদরিদ্র পরিবারের সদস্যরা এখন পড়েছে বিপাকে। প্রভাবশালী ফজু মাতবর ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের হুমকির মুখে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে তারা।

অভিযোগে বলেছে, জাহিরুল বিয়ের মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে ৭/৮ মাস ধরে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে দেহভোগ করেছে স্কুলছাত্রীর। এ নিয়ে গ্রামে কয়েক দফা বসে সালিস বৈঠক। ফজু প্রভাবশালী হওয়ায় কোনো বৈঠকেই জাহিরুলের বিরুদ্ধে রায় দিতে সাহস পায়নি মাতবররা। এ দিকে আইনি ঝামেলা থেকে ছেলেকে রক্ষা করার অপচেষ্টায় ফজু মাতবর নিয়েছে নতুন কৌশল। স্কুলছাত্রীর সাথে ছেলের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও তাতে শর্ত দিয়েছে ফজু। বিয়ের আগেই অনাগত সন্তান নষ্ট করতে হবে। মেয়ের পরিবারের সদস্যরা এতে রাজি হয়নি।  পরিবার ন্যায় বিচারের আশায় স্থানীয় পুলিশ প্রসাশন ও মানবধিকার সংস্থার সহযোগিতা চেয়েছে। অভিযুক্ত জাহিরুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি অভিযোগ স্বীকার করে বলেছেন, সমস্যা সমাধানের জন্য আমার পিতা চেষ্টা করছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *