চুয়াডাঙ্গার কৃতি সন্তান আশরাফুল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি নির্বাচিত

 

ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (জবিসাস) সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন চুয়াডাঙ্গার কৃতি সন্তান আশরাফুল ইসলাম। তিনি বর্তমানে দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত আছেন। গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সংগঠনটির কার্যালয়ে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জবির প্রক্টর ড. নূর মো‏হাম্মাদ। ভোটগ্রহণ শেষে সাংবাদিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা ও ভিসি অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বিকেল ৩টায় ফলাফল ঘোষণা করেন। এ সময় তিনি বলেন ২৫টি ভোটের মধ্যে ১৯ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর মধ্যে আশরাফুল ইসলাম ১৪ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রাশেদুল হাসান পান ৪ ভোট। বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন অনুষদের ডীন, সংগঠনটির সাবেক নেতারা এবং বিশ্ববিদ্যায়ের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা নির্বাচনের পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আশরাফুল ইসলাম সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় তার জন্মস্থান চুয়াডাঙ্গা জেলায় সাংবাদিকমহলসহ সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে খুশির আমেজ বইছে।

আশরাফুল ইসলাম চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আশানন্দপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মহর আলী। মায়ের নাম পারুলা খাতুন। তিনি বাবা-মায়ের প্রথম সন্তান। আশরাফুল যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজ থেকে পাস করে ২০১৩ সালে ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্সে অধ্যয়নরত আছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পরপরই দৈনিক জনতা পত্রিকার মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করেন তিনি।

এদিকে সাংবাদিক নেতা নির্বাচিত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান ও ট্রেজারার অধ্যাপক মো. সেলিম ভূঁইয়াকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান। ঢাবি, জাবি, রাবি, চবি, ইবি, কুবিসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকদের সংগঠনের নেতারা তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এছাড়া চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব ও সরোজগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিটের পক্ষ থেকে, জেলা ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগ নেতারাও শুভেচ্ছা জানান এবং চুয়াডাঙ্গার কৃতি সন্তান হিসেবে তার সাফল্য কামনা করেন। তিনি ভবিষ্যতে সাফল্য অর্জনের জন্য চুয়াডাঙ্গাসহ দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *