চিকিৎসা শেষে চুয়াডাঙ্গায় ফিরেছেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক গবেষক হামিদুল হক মুন্সী

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক গবেষক বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী চুয়াডাঙ্গা পৌর ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ হামিদুল হক মুন্সী চুয়াডাঙ্গায় ফিরেছেন। ঢাকার বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গত মঙ্গলবার তিনি চুয়াডাঙ্গা সিনেমা হলপাড়ার বাড়িতে ফেরেন। গত ২৯ জানুয়ারি তাকে ঢাকার বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার পায়ের একটি আঙুল কেটে শরীর থেকে বাদও দিতে হয়েছে। বর্তমানে আঙুলের ক্ষতস্থান অনেকটাই শুকিয়ে উঠেছে।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের সিনেমা হলপাড়ার বাসিন্দা হামিদুল হক মুন্সী কবি-সহিত্যিক ও মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক বহু গ্রন্থের রচয়িতা। দৈনিক মাথাভাঙ্গা পত্রিকা প্রস্তাবনা পর্বে নিযুক্ত সম্পাদক। চুয়াডাঙ্গা পৌর ডিগ্রি কলেজে দীর্ঘদিন অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মাঝে কয়েকটি কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। নিষ্ঠার সাথে অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করে কয়েকবার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ হিসেবে পুরস্কৃতও হয়েছেন। গত জানুয়ারির প্রথম দিকে হামিদুল হক মুন্সীর পায়ে পেরেক ফোটে। এরপর স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে অস্ত্রোপচার করেও কাজ হয়নি। বরঞ্চ ইনফেকশন ছড়িয়ে যেতে শুরু করে। শেষ পর্যন্ত তাকে ঢাকার বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসা শেষে তিনি চুয়াডাঙ্গাস্থ নিজ বাড়িতে ফেরেন। তার পরিপূর্ণ সুস্থতার জন্য আরও কিছুদিন দেরি হবে বলে পারিবারিকসূত্রে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *