চার দিনেও কুষ্টিয়া সীমান্তে নিখোঁজ দুই বাংলাদেশির সন্ধান মেলেনি

 

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বাংলাদেশিদের লক্ষ্য করে বিএসএফ’র গুলি বর্ষণে গুলিবিদ্ধ দুই বাংলাদেশির ৪ দিনেও সন্ধান মেলেনি। ফলে নিখোঁজ পরিবারদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

গত সোমবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের সরকারপাড়া চর সীমান্তে বাংলাদেশিদের লক্ষ্যে করে বিএসএফ গুলি বর্ষণ করলে মামুন (৩০) ও আলিম (৪৫) নামে দু বাংলাদেশি কোমর ও পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ পরিবারদের দাবি বিএসএফ’র গুলিতে দুজন নিহত হলে বিএসএফ তাদের লাশ গুম করে থাকতে পারে। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ১৫৭/৩(এস) সীমান্ত পিলারের সন্নিকটে নোম্যান্স ল্যান্ডে বিবিজি-বিএসএফ’র মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হলে বিএসএফ’র গুলিতে দুজন বাংলাদেশি গুলিবিদ্ধ হয়ে নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি বিএসএফ অস্বীকার করেন।

তবে নিখোঁজ মামুনের ছোট ভাই শিপন (২৮) জানিয়েছে, বিএসএফ এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষণে তার ভাই মামুন ও প্রতিবেশী আলিম গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে মামুনকে ঘাড়ে করে নিয়ে পালানোর চেষ্টার করে ব্যর্থ হয়ে মাঠের ভেতর তাকে ফেলে পালিয়ে আসি।

পরে মঙ্গলবার ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্ত পড়ে থাকতে দেখলেও সেখানে তার ভাইয়ের লাশ বা গুলিবিদ্ধ দুজনের কাউকে পাওয়া যায়নি। নিখোঁজ মামুন ডাংয়েরপাড়া গ্রামের মহা আলীর ছেলে এবং আলীম একই গ্রামের মৃত কামু ফকিরের ছেলে বলে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *