গোবিন্দগঞ্জে আওয়ামী লীগের দু গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

আহত ৩০ পুলিশের ৩০ রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ

 

স্টাফ রির্পোটার: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে আওয়ামী লীগের দু গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও ককটেল হামলায় পুলিশ এবং পথচারীসহ উভয় পক্ষের ৩০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। এ সময় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে দু ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সমগ্র এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কাইয়ুম ও রাজু নামে ছাত্রলীগের গোবিন্দগঞ্জ কলেজ শাখার দু নেতা প্রহৃত হওয়ার জের ধরে রাত আট টার দিকে উভয় গ্রুপ লাঠিসোটাসহ ধারলো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ায় লিপ্ত হয়। এ সময় আতঙ্কিত লোকজন দিকবিদিক ছুটোছুটি করায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে প্রায় দু ঘন্টা পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলে রাত পৌনে ১০টার দিকে পুনরায় ওই সড়কে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। শহরে র‌্যাব-পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। শহর জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এ ঘটনায় আহত বেশ কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ খবর লেখা পর্যন্ত তাদের সংখ্যা জানা যায়নি। উল্লেখ্য, গোবিন্দগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বহিরাগতদের হামলার শিকার হন দু ছাত্রলীগ নেতা। বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, গোবিন্দগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে উপাধ্যক্ষ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে ছাত্রলীগ কলেজের অধ্যক্ষের কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেয়। গত বুধবার কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্মআহ্বায়ক পীরজাদা আব্দুল কাউয়ুম ও রাজু সরকার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুক কয়েকজন ছাত্রের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র তোলার জন্য কিছু সময়ের জন্য অফিস কক্ষের তালা খুলে নেয়। এর প্রেক্ষিতে গতকাল বৃহস্পতিবার কতিপয় বহিরাগত যুবক কলেজ ক্যাম্পাসে গিয়ে তালা খোলার অভিযোগ এনে ছাত্রলীগ নেতাদের ওপর আকস্মিক হামলা চালায়। এতে দু জনই গুরুতর আহত হন। তাদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাতে পুনরায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *