গুজব আতঙ্কে আতঙ্কিত মহেশপুরবাসী

মহেশপুর প্রতিনিধি: কোথাও শোনা যাচ্ছে স্কুল পড়ুয়া বাচ্চাদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে আবার কোথাও শোনা যাচ্ছে মাথা কেটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এমন আতঙ্কে রয়েছেন ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকাবাসী।

প্রাপ্তসূত্রে প্রকাশ, বেশ কয়েকদিন ধরে মহেশপুর উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম-গঞ্জে চায়ের দোকানে মানুষের মুখে মুখে শোনা যাচ্ছে মানুষ ধরে নিয়ে যাওয়া এবং তাদের মাথা কেটে নেয়া এমন গুজব ঘটনার কথা। নিজ চোখে এমন ঘটনা কেউ না দেখলেও শোনা কোথায় বিশ্বাস করে অনেকে তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। আবার অনেকে তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছেন।

পৌর এলাকার ক্যাম্পপাড়া গ্রামের রেহেনা খাতুর বলেন, তাদের পাড়ার সকলের মুখে-মুখে এমন ঘটনার কথা শোনা যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন ছেলে-মেয়েদেরকে স্কুলে পাঠিয়ে, স্কুল থেকে বাড়ি না ফেরা পর্যন্ত আতঙ্কে থাকি। হুদাশ্রীরামপুর গ্রামের জাহিদুল ইসলাম বলেন, ফোনের মাধ্যমে অনেক আত্মীয় তাকে  ছেলে-মেয়ে ধরে নিয়ে যাওয়া এবং তাদের মাথা কেটে নেয়ার ঘটনার কথা জানিয়েছেন এবং তাদেরকে সতর্ক থাকতে বলেছেন। চড়কতলা মোড়ের চায়ের দোকানদার আয়নাল হক বলেন, চা খেতে আসা অনেকের মুখ থেকে শুনেছেন বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ ধরে নিয়ে যাওয়ার কথা। তবে তিনি তা বিশ্বাস করেন না বলে জানান।

এ বিষয়ে মহেশপুর থানার ওসি আহম্মেদ কবির জানান, এ ধরনের অভিযোগ আমরা শুনেছি, তবে এমন ঘটনা কোথাও এখনও পর্যন্ত ঘটেনি। তিনি আরও বলেন, যদি ছদ্দবেশী বা অপরিচিত সন্দেহজনক কাউকে ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায় তাহলে সাথে সাথে থানায় খবর দিবেন। বর্তমানে গুজব আতঙ্ক রয়েছেন মহেশপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কোমলমতি শিশুসহ তাদের পরিবারের লোকজন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *