গাংনীর আরবিজিএম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আবারও বহিরাগতদের হামলা

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর গাংনী উপজেলার রামনগর আরবিজিএম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আবারও বহিরাগতদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত রোববার দুপুরে বহিরাগতদের হামলায় আহত হয়েছেন নবম শ্রেণির ছাত্র নওদা মটমুড়া গ্রামের সুজন হোসেন। বারবার বহিরাগতদের হামলা ও ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনা ঘটলেও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তেমন কোনো ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।
স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, রামনগর গ্রামের আসমত আলীর ছেলে আকাশ, রুপচাঁদ আলীর ছেলে ফিরোজ হোসেন ও ভবানীপুর গ্রামের ভুটু মিয়ার ছেলে সজিব হোসেন রোববার বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয় ভবনে অবস্থান নেয়। ছাত্রীদের কক্ষের কাছাকাছি গিয়ে অবস্থান করায় প্রতিবাদ করে কয়েকজন ছাত্র। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নবম শ্রেণির ছাত্র সুজন হোসেনকে মারধর করে ওই তিন বখাটে। বিষয়টি টের পেয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের ধাওয়া করে। অবস্থা বেগতিক দেখে তারা শিক্ষকদের কক্ষে আশ্রয় নেয়। তবে শিক্ষকদের কয়েকজন তাদেরকে চড়-থাপ্পড় দিয়ে নিরাপদে সরিয়ে দেন।
এদিকে বখাটেদের ছাত্রী উত্ত্যক্ত ও ছাত্র মারধরের ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক সাজা না হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। অসন্তোষ প্রকাশ করেন অভিভাবকরা। বারবার এ ধরনের ঘটনায় বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তেমন কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় শিক্ষকদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ভুক্তভোগীরা।
প্রসঙ্গত, গেত ২৩ জুলাই ওই বিদ্যালয় কক্ষে বসে বিদ্যালয়ের দুই ছাত্রের সাথে বহিরাগত রাফিজ গাঁজা সেবন করছিলো। বিষয়টির প্রতিবাদ করায় নবম শ্রেণির ছাত্র রাজু আহম্মেদকে মারধর করে তার মাথা ফাটিয়ে দেয় তিন গাঁজাখোর। এ ঘটনায় বিদ্যালয় ও এলাকাজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। তবে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্যদের সভা ডেকে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের আশ^াস দেন প্রধান শিক্ষক। যা আশ^াসেই আটকে রয়েছে বলে জানান ভুক্তভোগীরা।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.