গাংনীতে প্রবাসীর স্ত্রীর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

গাংনী প্রতিনিধি: কবিরাজের দেয়া সিদ্ধ ডিম নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্বের জেরে শিলা খাতুন (৩১) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। গত বুধবার দিনগত গভীর রাতে বসত ঘরের সিঁড়ির রডের সাথে গলায় ফাঁস দেন তিনি। ঘটনাটি মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কামারখালী গ্রামে। শিলা ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসী সাহারুল ইসলামের স্ত্রী।
গৃহবধূ শিলার বাবা সাইদুর রহমান জানান, শিলার স্বামী সাহারুল বিগত ১০ বছর যাবত সৌদি আরবে থাকেন। তাদের ঘরে রয়েছে ১২ বছরের পুত্র সন্তান ইমন। ৪ মাস আগে বাড়িতে আসেন সাইদুর। দ্বিতীয় সন্তানের আশায় এক কবিরাজের কাছ থেকে ডিম পড়ে নিয়ে আসেন শিলা। ওই ডিম সিদ্ধ করে সাইদুরকে খেতে বললে সাইদুর গালমন্দ করেন শিলাকে। অভিমানে শিলা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।
গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। উভয় পরিবারের লিখিত আবেদনের প্রেক্ষিতে মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফনের অনুমতি দেয়া হয়।
স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে মরদেহ দেখতে গিয়ে শিলার পিতার পরিবার তার স্বামীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ করে। এক পর্যায়ে সমঝোতা হয়। শিলার ছেলের নামে নগদ এক লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং বাড়ির জমির অর্ধেক রেজিস্ট্রি করে দেয়ার সিদ্ধান্তে দুই পরিবার একমত পোষণ করেন। ছেলের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই এটি করা হয়েছে বলে স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *