গর্তের মাটি রাস্তার উপর থাকায় যে কোনো সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা সম্ভবনা

সাইদুর রহমান: চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের দু পাশে বিশালাকার গাছ কেটে রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হয়েছে। গাছ কাটার ফলে রাস্তার পাশে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। গর্তের মাটি রাস্তার ওপর রাখায় অতিরিক্ত যানজট ও চলাচলের জন্য ঝুঁকিপুর্ণ হয়ে পড়েছে। এ কারণে প্রতিদিনই দুর্ঘটনা ঘটছে বলে জানা গেছে।

এ ছাড়াও সড়কের দু পাশে কাঠ ব্যাবসায়ীদের কাঠের লগ ও ডাল ফেলে রাখার কারণে সড়কটি সরু হয়ে পড়েছে। যে কোনো সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটার সম্ভবনা রয়েছে বলে জানান রাস্তায় চলাচলকারী সচেতন জনগণ। এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর প্রধান সড়কের দু পাশের বিশালাকার এ গাছগুলি বৃটিশ আমলের এসব গাছের গোড়ার ভিতর অংশে পচা। এমনিতেই ছোটখাট ঝড় হলেই ভেঙ্গে পড়ার কথা তার উপর কিছু গাছ মরেপচে ঠাই দাড়িয়ে আছে। আবার কিছু গাছের মরে শুকিয়ে পচে গিয়ে খুবই ঝুঁকিপুর্ন হয়ে উঠেছে। এ বিষয়ে প্রতিদিনই চুয়াডাঙ্গায় যাতায়াতকারী কয়রাডাঙ্গার ইনামুল ও ভালাইপুর গ্রামের সাইফুল ইসলাম বলেন গাছ কাটার কারণে গর্ত ও গর্তের মাটি এবং গাছের লগ রাস্তা দু পাশে এলোমেলোভাবে পড়ে থাকার কারণে যানজটপুর্ণ রাস্তাটি যাতায়াতের একেবারেই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ সমস্যা প্রতিকারের উপায় আমাদের অজানা। প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সড়ক বিভাগকে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আগেই পদক্ষেপ নিয়ে সড়কের দু পাশ ঝুঁকিমুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *