খালেদা জিয়াকে নিয়ে হতাশ ভারত

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে হতাশ ভারত। বিগত দু বছরে খালেদা জিয়ার সাথে ভারতের গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের আলোচনার পরও কোনো ইতিবাচক ফল না আসায় ভারত হতাশ হয়েছে। গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বিএনপি বয়কট করায় দিল্লির সাউথ ব্লক হতাশ। কারণ, এর মাধ্যমে ইতিবাচক কোনো ফল বেরিয়ে আসবে না। ২০১১ সালে খালেদা জিয়ার সাথে ভারতের ভাইস-প্রেসিডেন্টের বৈঠকের মধ্যদিয়ে আলোচনার সূচনা হয়। ২০১২ সালে বেগম খালেদা জিয়া যখন ভারত সফর করছিলেন তখন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং তার জন্য বিশেষ মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করেছিলেন। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসএম কৃষ্ণা ও বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী সালমান খুরশিদ তার সাথে বৈঠক করেছেন। এমনকি গত বছরের মার্চে ঢাকা সফরের সময় রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি তার সাথে বৈঠক করার চেষ্টা করেছিলেন। ২০১২ সালে ভারত সফরের সময় খালেদা জিয়া বলেছিলেন, তিনি খোলা মন নিয়ে এসেছেন। অতীতের ক্ষত ও তিক্ততার অবসান ঘটিয়ে তিনি নতুন যুগের সূচনার প্রত্যাশা করেন। তার ঢাকা ফেরা ও শেখ হাসিনাকে ভারতপন্থি বলে আক্রমণ করার আগ পর্যন্ত তার সফরকে দিল্লি সফল হিসেবে দেখছিলো। শেখ হাসিনাকে সিকিমের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী লহেনদুপ দর্জির সাথে জামায়াতে ইসলামীর তুলনা করাকে সমর্থন দেয়ায় দিল্লি খালেদা জিয়ার প্রতি মনোক্ষুণ্ণ। সর্বশেষ পররাষ্ট্র সচিব সুজাতা সিং খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাত করেন। শেখ হাসিনার সাথে আলোচনার জন্য ভারতের পক্ষ থেকে অনুরোধের কথা তাকে জানানো হয়। আলোচনাকালে খালেদা জিয়া জামায়াতের অবস্থানে সমর্থনের কথা তুলে ধরেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *