খবর প্রকাশের পর অবশেষে মামলা নিলো কালীগঞ্জ থানা পুলিশ

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: অবশেষে খবর প্রকাশের পর ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পারভেজ হোসেন (১৪) নামে এক শিশু নির্যাতনের বিষয়ে মামলা রেকর্ড করেছে পুলিশ। এজাহারে স্থানীয় এমপির কাছের লোক হিসেবে পরিচিতদের নাম থাকায় ১০ দিন ধরে ঘুরাচ্ছিলো পুলিশ। এ নিয়ে সোমবার বিকেলের দিকে শিশু পারভেজের নির্যাতনের লোমহর্ষক কাহিনী তুলে ধরে সচিত্র খবর প্রকাশিত হলে তোলপাড় শুরু হয়। খবরটি প্রকাশ হওয়ার পর পরই পুলিশের ঊর্ধ্বতন মহলের চাপে ১০ দিন পর মামলা রেকর্ড করেন কালীগঞ্জ থানার ওসি আমিনুল ইসলাম। কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে সোমবার সন্ধ্যার দিকে জানান, ৮ জনকে আসামি করে নির্যাতিতের মা পারভিনা খাতুন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

উল্লেখ্য, কালীগঞ্জের দাসবায়সা গ্রামের আজিজুল ইসলামের মেয়ের সাথে রাস্তায় দাঁড়িয়ে কথা বলার অপরাধে শিশু পারভেজকে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়। ঘটনাটি গত ২৩ জুন ঘটলেও আজ পর্যন্ত থানা কোনো মামলা নেয়নি। অবশেষে বিভিন্ন পেপার পত্রিকা ও অনলাইনে খবরটি প্রকাশিত হলে পুলিশ প্রশাসনে হইচই পড়ে যায়। পারভেজ মাগুরার শালিকা উপজেলার সিমাখালীর পিয়ারপুর গ্রামের শিমুল হোসেনের ছেলে। জন্মের পর থেকে পারভেজ কালীগঞ্জ উপজেলার দামোদরপুর গ্রামে তার নানা জিল্লুর রহমানের বাড়িতে থাকতো। বর্তমানে পারভেজ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১০০ নং ওয়ার্ডের ইউনিট-২ এর বি-৪০ নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *