কেবিনেটে আরপিও’র খসড়া অনুমোদন

 

স্টাফ রিপোর্টার: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দণ্ডিত যুদ্ধাপরাধীদের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়াকে অযোগ্যের বিধান রেখে গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ (আরপিও) ২০১৩’র খসড়ার (সংশোধন) চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভায় সভাপতিত্ব করেন। সভাশেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশারররফ হোসাইন ভুইঞা সাংবাদিকদের জানান, আরপিও আইনটি মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে। এখন ভেটিং সহকারে চূড়ান্ত হয়ে সংসদে যাবে।

তিনি জানান, এ আইনের মধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীর জামানতের পরিমাণ ১০ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০ হাজার টাকা করা হয়েছে। নির্বাচনী ব্যয় ১৫ লাখ থেকে বাড়িয়ে ২৫ লাখ টাকা করা হয়েছে। তবে দলীয় প্রধানদের ভ্রমণের ব্যয় ওই খরচের অন্তর্ভুক্ত হবে না। মন্ত্রী পরিষদ সচিব বলেন, নির্বাচনী মামলা ফি দু হাজার থেকে বাড়িয়ে পাঁচ হাজার টাকা,  দলের অনুদানের ক্ষেত্রে ব্যক্তিপর্যায়ে অনূর্ধ্ব ১০ লাখ থেকে বাড়িয়ে ২৫ লাখ এবং সংস্থা বা কোম্পানির ক্ষেত্রে ২৫ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৫০ লাখ টাকা করা হয়েছে। আর পোলিং এজেন্ট নিযুক্ত করতে হবে সংশ্লিষ্ট এলাকার ভোটারদের মধ্য থেকে। নির্বাচন পরিচালনার জন্য সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের বদলির বিষয়ে নির্বাচন কমিশন কোনো অনুশাসন জারি করলে তা মানতে বাধ্য থাকবে। এছাড়াও মাল্টিলেভেল মার্কেটিং কার্যক্রম (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩’র খসড়ারও চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *