কেনিয়ায় এবার বউ ভাগাভাগি!

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: তারা তিনজন কেনিয়ার নাগরিক। দুজন পুরুষ ও একজন নারী। তিন জনে মিলে একটি অবাক করা চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন। এদের মধ্যে দুইজন পুরুষ তাদের নারী সদস্যকে স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করবেন। স্ত্রীও হাসি মুখে দু স্বামীকে কবুল বলবেন। খবরে বলা হয়, দু পুরুষের স্ত্রী ভাগাভাগির পেছনে রয়েছে নারীরই হাত। চার বছর ধরে দু পুরুষের সাথে অ্যাফেয়ার রেখে আসছেন তিনি। দুজনের মধ্য থেকে একজনকে বাছাই করে নিতে বললেও তিনি বরাবর অস্বীকার করে আসছেন। শেষ পর্যন্ত ওই নারীর প্রেমের কাছে হার মেনেছেন সিলভেস্টার মুয়েন্ডোয়া ও ইলিযাহ কিমানি নামের ওই দুই পুরুষ। দুজনেই প্রেয়সী নারীকে স্ত্রী হিসেবে মেনে নিতে ও অন্যকে ভাগ দিতে রাজি হয়ে চুক্তি করেছেন। চুক্তি মোতাবেক মুয়েন্ডোয়া ও কিমানি দুজনেই স্বামী হিসেবে তাদের স্ত্রীর বাড়িতে বাস করবেন।
একসঙ্গে দুজন মিলে ওই নারীর গর্ভে আসা যেকোনো সন্তানকে লালন-পালন করবেন। তবে তাদের আইনজীবী বলছেন, তাদের মধ্যে স্ত্রী ভাগাভাগির বিয়েটি তখনই স্বীকৃতি পাবে যখন তারা প্রমাণ করতে পারবেন যে, তাদের সংস্কৃতিতে পলিঅ্যান্ড্রি (একাধিক স্বামীর এক স্ত্রী প্রথা) রয়েছে। তারা বলছেন, আইন নিয়ে আমরা কথা বলিনি। তবে কেনিয়ায় এমন একত্রে বসবাসের পদ্ধতি রয়েছে। এটা হতে পারে প্রথাগত বা আইনিসিদ্ধ বিয়ে। সাংবাদিকরা বলছেন, কেনিয়ায় এক স্বামীর একাধিক স্ত্রী পদ্ধতি চলমান। তবে এমন বউ ভাগাভাগির ঘটনা শোনা যায় না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *