কুষ্টিয়ায় আ.লীগে যোগ দেয়া সেই জামায়াত নেতা আত্মগোপনে

স্টাফ রিপোর্টার: কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগে যোগ দেয়া জামায়াতে ইসলামীর সাবেক রোকন নওশের আলী আত্মগোপনে চলে গেছেন। গতকাল বুধবার নওশেরকে শহরের কোথাও দেখা যায়নি। এমনকি তার ব্যক্তিগত দুটি মুফোঠোনও বন্ধ পাওয়া গেছে। গত সোমবার রাতে কুষ্টিয়া শহরে এক নির্বাচনী মঞ্চে জেলা জামায়াতের রোকন ও পরিবহনের নেতা নওশের আলী আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফের সাথে করমর্দন করে দলে যোগ দেন। তিনি মিনিবাস মালিক সমিতির সহসভাপতি ও জামায়াতপন্থি সংগঠন শ্রমিককল্যাণ ফেডারেশনের জেলা সভাপতি। জেলা ছাত্রশিবিরের এক শীর্ষস্থানীয় নেতা জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রবিউল ইসলাম নওশের আলীর দূর সম্পর্কের আত্মীয়। রবিউল সোমবার রাতে হানিফের নির্বাচনী সভায় নওশেরকে ডেকে নিয়ে যান। সেখানে একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে যায়। ওই নেতা বলেন, ২০১২ সালের ৫ নভেম্বর কুষ্টিয়া শহরে পুলিশের সাথে জামায়াত-শিবিরের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। ওই সংঘর্ষে ছয় পুলিশ কর্মকর্তাসহ ৩০ জন আহত হয়। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করে। মামলায় নওশের আলী গ্রেফতার হয়ে প্রায় ছয়-সাত মাস কারাগারে থাকেন। চার-পাঁচ মাস আগে তিনি ছাড়া পান। শিবিরের ওই নেতা আরও বলেন, গত ১৪ ডিসেম্বর রাতে কুষ্টিয়া বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেন সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন। ওই হত্যাকাণ্ডের এখনো কোনো ক্লু উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এ হত্যাকাণ্ডে তাকে ফাসানো হতে পারে বলে নওশের আলী মানসিক চাপে ছিলেন। পরিবহন-ব্যবসা ছাড়াও নওশের আলী ব্রিটিশ-আমেরিকা টোবাকো কোম্পানির সাবেক একজন প্রভাবশালী শ্রমিকনেতা। তিনি কোটিপতি ব্যবসায়ী।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *