কালীগঞ্জ পৌর মেয়র কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা বিজুর বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পৌর মেয়র কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বিজুর বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় দুইটি মামলা হয়েছে। বুধবার দুপুরে মেয়রের গুলিতে কালীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক সুমন (২৮) আহত হওয়ার ঘটনায় যুবলীগ নেতা আনিচুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলাটি করেন। মেয়রের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে অপর মামলাটি করেন কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক নীরব হোসেন। বুধবার মধ্যরাতে মামলা দুটি রেকর্ড করা হয়।
কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান বিজুকে প্রধান করে অজ্ঞাত আরো ১৫ জনকে আসামি করা হয়। এছাড়া কালীগঞ্জ থানার এসআই নীরব হোসেন বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে মেয়রসহ দুজনকে আসামি করে আরেকটি মামলা করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, মামলা রেকর্ডের পর পুলিশ আসামিদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে।
উল্লেখ্য, বুধবার পৌরসভার একটি রাস্তা নির্মাণ ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান বিজু ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের সমর্থকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। সকালে মেয়রের উপস্থিতিতে রাস্তার কাজ বন্ধ করতে গেলে এমপি সমর্থিত গ্রুপের রাসেল নামে এক যুবলীগ কর্মীকে গণধোলাই দেয় মেয়রের লোকজন। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে এমপি গ্রুপের লোকজন মেয়রের বাড়িতে চড়াও হলে মেয়র গুলি চালায়। ছাত্রলীগের দাবি মেয়র বিজুর লাইসেন্স করা পিস্তলের গুলিতে আহত হন ছাত্রলীগ নেতা সুমন। এ ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার রাতে ছাত্রলীগ কালীগঞ্জ শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে বেশ কয়েকটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *