এসএসসি ফরম পূরণ অতিরিক্ত টাকা নেয়ার জন্য আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ

চুয়াডাঙ্গা জেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসাইনের ঘোষণা  

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসাইন বলেছেন ‘২০১৪ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে যেসকল বিদ্যালয় বোর্ড কর্তৃক নির্ধারিত ফি’র চেয়ে অতিরিক্ত ফি নিচ্ছে সেই সকল বিদ্যালয় পরিদর্শন করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং অভিযুক্ত বিদ্যালয় ও প্রধান শিক্ষকদের তালিকা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাঠানো হবে।’

গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত জেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় সভাপতির বক্ত্যবে জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসেন এসব কথা বলেন। সভার সঞ্চালক ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মল্লিক সাঈদ মাহবুব। সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কবীরুল হাসান, জেলার সিভিল সার্জন ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল আমিন, দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদুর রহমান, বিএডিসির যুগ্মপরিচালক আব্দুল মালেক, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা খন্দকার আলাউদ্দিন আল আজাদসহ সরকারি সকল দফতরের প্রধানরা।

জেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় বিএডিসি’র ভেজাল ভুট্টাবীজ বাজার থেকে কৃষকরা কিনে প্রতারিত হচ্ছে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। কৃষকদের হয়রানি বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেয়া হয়। ভেজাল বীজ বিক্রেতাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের আওতায় আনার বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এছাড়া সরকারি সকল দফতরের উন্নয়নের হালনাগাদ চিত্র সভায় তুলে ধরা হয়।

এদিকে, সভা শেষে দুপুরে চুয়াডাঙ্গা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের একদল এসএসসি পরীক্ষার্থী ফরম ফিলাপে অতিরিক্ত ফি আদায় করছে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত অভিযোগে দিয়েছে। জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসেন তাৎক্ষণিকভাবে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল আবুল আমিনকে বিষয়টি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। অভিযোগে বলা হয়েছে, বোর্ড নির্ধারিত ফির চেয়ে বিজ্ঞান বিভাগে দু হাজার ৪৮৫ টাকা ও ব্যবসা ও মানবিক শাখার জন্য দু হাজার ৩৮৫ টাকা করে ফি আদায় করছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। যা শিক্ষার্থীদের পরিবারের পক্ষে ব্যয়ভার বহন সম্ভব নয়। সেকারণে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *