ইবির এফ ইউনিটের ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত হাইকোর্টে বাতিল

 

ইবি প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ফলিত ও প্রযুক্তি বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত এফ ইউনিটের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত হাইকোর্ট বাতিল করে দিয়েছে। ‘এফ’ ইউনিটে (গণিত ও পরিসংখ্যন) ভর্তি হওয়া ৮৮ জন শিক্ষার্থীর করা আবেদনের প্রেক্ষিতে সোমবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের স্বমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত ৬ মাসের জন্য স্থগিত করে হাইকোর্ট। গতকাল সোমবার আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মনিরুজ্জামান।

ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল জানান, ‘ইবির এফ ইউনিট (গণিত ও পরিসংখ্যান)’র ভর্তি পরীক্ষা বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের নেয়া সিদ্ধান্ত বাতিল করেছে হাইকোর্ট। হাইকোর্ট আদেশ দিয়েছেন, পূর্বে ভর্তি হওয়া একশ’ জন শিক্ষার্থীর ভর্তি বৈধ। তারা এখন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। তবে যারা অনিয়মের মাধ্যমে ভর্তি হয়েছে তাদেরকে শনাক্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের ভর্তি বাতিল করতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, হাইকোর্ট আদেশে আরও বলেছেন, পরে অনুষ্ঠিত ভর্তি পরীক্ষায় যেসব শিক্ষার্থী মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হয়েছেন তারাও সংশ্লিষ্ট ইউনিটে ভর্তি হতে পারবে। তবে এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চাইলে আসন বৃদ্ধি করতে পারে অথবা আগামী সেশনে তাদেরকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ভর্তি করাতে পারবে।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন, আমরা রায়ের কপি এখনও পাইনি। কপি পেয়েই পরবর্তী বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবো।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৭ নভেম্বর এফ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শেষে বিভিন্ন মহল থেকে এই ইউনিটের প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ উঠলে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তদন্ত প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে গত ৬ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৩৩ তম সিন্ডিকেট সভায় ‘এফ’ ইউনিটে ভর্তি হওয়া একশ’ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ১৬ মার্চ পুনরায় ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়ে শিক্ষার্থীরা হাইকোর্টে রিট করেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *