আলমডাঙ্গা থানার ওসি বললেন আমার নলেজে আছে

 

স্টাফ রিপোর্টার: আলামডাঙ্গা থানার এএসআই মেজবাহ বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে ১’শ৫০ কেজি ভারতীয় মালামাল ধরে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রোবাবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে আলামডাঙ্গা ষ্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সূত্রে জানাগেছে চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গা উপজেলার মুন্সিপুর এলাকার হাসিনা, মনোয়ার, ফরিদা নামের ৩ মহিলা ১’শ৫০ কেজি ওজনের বেশ কিছু অবৈধ ভারতীয় হাড়ি-পাতিল নিয়ে আলমডাঙ্গা ষ্টেশন এলাকায় অবস্থান করছিলো। এসময় এএসআই মেজবাহ তাদের আটক করে। পরে ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে তাদেও ছেড়ে দেয়। এ বিষয়ে এএসআই মেজবাহ জানান আমার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ মিথ্যা। আলামাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম জানান মালামাল ছিলো ২০ কেজিমত। মহিলা ৩জন গরীব মানুষ তাই তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সম্ভবত ২/৩ হাজার টাকা দিয়েছে তাও এক দোকানদার দিয়েছে, যা আমার নলেজে আছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.