আলমডাঙ্গায় ৪০ পিস ইয়াবাসহ রকি-চুমকি দম্পত্তি আটক

রাজমিস্ত্রীর কাজ করে ভিক্ষা করে যা উপার্জন করে তা চলে যায় নেশার পেছনে

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা রাধিকাগঞ্জ কোহিনুরের বাড়িতে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বাড়ির ভাড়াটিয়া রকি-চুমকি দম্পত্তিকে আটক করেছে। গত শনিবার রাতে রকি ও তার স্ত্রী চুমকিকে আটক করা হয়। আটকের পর তাদের নিকট থেকে ৪০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, আলমডাঙ্গা পৌর এলাকার এরশাদপুর গ্রামের জামিরুল ইসলামের ছেলে রকি (২৫) পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী। দীর্ঘ ৮ বছর ধরে তিনি ইয়াবা ব্যবসা এবং ইয়াবা ও হেরোইন সেবন করে আসছেন। ৬-৭ বছর আগে রকি কালিদাসপুর গ্রামের টুলুর মেয়ে চুমকিকে (২২) বিয়ে করেন। চুমকি আলমডাঙ্গা রেলস্টেশন এলাকায় ভিক্ষা করেন। রকি-চুমকি দম্পত্তি বিয়ের পর থেকেই দুজন একই সাখে হেরোইন ও ইয়াবা সেবন করে আসছিলেন। প্রতিদিন তাদের গড়ে ৫-৬ পুরিয়া হেরোইন ও ৫-৬ পিস ইয়াবা সেবন করতে হয় বলে তারা জানান। রকি রাজমিস্ত্রীর কাজ করে ও চুমকি ভিক্ষা করে যা উপার্জন করেন তা নেশার পিছনে চলে যায়। চুমকি দিনের বেলা ভিক্ষা করার সময় নিজেকে প্রতিবন্ধী সাজিয়ে ভিক্ষা করেন। রকি-চুমকি দম্পত্তি গত দুই-তিন মাস আগে রকি আলমডাঙ্গা গোহাট এলাকায় রাধিকাগঞ্জের কোহিনুরের বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিলেন। গত শনিবার বিকেলে গাংনী কাজীপুর এলাকার মিলন নামে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী ৪০ পিস ইয়াবা রকি দম্পত্তির নিকট বিক্রি করে যান। রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই টিপু সুলতান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে রকি দম্পত্তিকে আটক করেন। এবিষয়ে আলমডাঙ্গা থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। গতকাল রোববার রকি-চুমকি দম্পত্তিকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.