আলমডাঙ্গার বলেশ্বরপুরে লাগাতার চুরির প্রতিরোধ বিষয়ে সালিসসভা

মোমিনপুর প্রতিনিধি: আলমাডাঙ্গা উপজেলার আইলহাস ইউনিয়নের বলেশ্বরপুর বাজারে দীর্ঘদিন ধরে দোকান থেকে চুরি এবং এলাকায় গরু চুরির উপদ্রব বেড়েছে। প্রায়ই চুরির ঘটনায় ব্যবসয়ীরাসহ এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। গতকাল শুক্রবার সকালে বলেশ্বরপুর বাজার প্রাঙ্গণে ব্যবসায়ীদের উদ্যোগে চুরির প্রতিরোধ বিষয়ে সালিসসভা বসে। গত দু দিন আগে কিরন স্টোরে চুরির ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে কিরণ স্টোরের স্বত্বাধিকারী কিরণ বলেশ্বরপুর গ্রামের মৃত ফকির উদ্দীনের ছেলে সাহেবকে (৩০) সন্দেহভাজন আসামিসহ অজ্ঞাত তিনজনের নামে থানায় অভিযোগ করেন। থানায় অভিযোগ করায় সন্দেহভাজন আসামি বাদীকে প্রকাশ্যে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়েছে। বলেশ্বরপুর বাজারে গত দু দিন আগে কিরণ স্টোরের তালা ভেঙে চুরির ঘটনা ঘটে। গতকাল সকালে বলেশ্বরপুর বাজারে চুরি প্রতিরোধ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের আয়োজনে সালিসসভার আয়োজন করা হয়। সালিসসভায় উপস্থিত ছিলেন আইলহাস ইউপি চেয়ারম্যান মিনাজ উদ্দীন, আলমডাঙ্গা থানার এসআই টিপু সুলতান ব্যবসায়ীরাসহ অভিযুক্ত সন্দেহভাজন আসামি সাহেব আলী।

সালিসসভায় এসআই টিপু সুলতান জনসম্মুখে বলেন, আমার কাছে যথেষ্ট তথ্য আছে কিরণ স্টোরের চুরির সাথে সাহেব জড়িত আছে। তিনি জোরালোভাবে বলেন একাধিক তথ্যের ভিত্তিতে আমি নিশ্চিত সাহেব ওই চুরির সাথে সম্পৃক্ত। সন্দেহভাজন সাহেব সালিসসভায় নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করে। এক পর্যায়ে এসআই টিপু সুলতান অভিযুক্ত সন্দেহভাজন সাহেবকে আটক করে থানায় নিতে চাইলে জনপ্রতিনিধি এবং এলাকাবাসীর অনুরোধে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। সালিসসভা শেষ হতে না হতেই সন্দেহভাজন সাহেব হাসানুজ্জামান কিরণকে প্রকাশ্যে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.