আলমডাঙ্গার ফরিদপুর গ্রামের গৃহবধূর আত্মহত্যা

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গার ফরিদপুর গ্রামের এক গৃহবধূ দানাদার কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গ্রামের রিকাত শাহ’র ছেলে পল্লী বিদ্যুত সমিতির কর্মচারী জহুরুল ইসলামের স্ত্রী ১ কন্যা সন্তানের জননী নার্গিস খাতুন (৩০) দানাদার কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করেন। গত রোববার রাত ১২টার দিকে বাড়ির সকলে ঘুমিয়ে গেলে তিনি কীটনাশক খান বলে জানা গেছে। কীটনাশক খাওয়ার পর প্রথমে তাকে হারদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হলে পথিমধ্যে তার মৃত্যু ঘটে।
গ্রামসূত্রে জানা যায়, নার্গিস খাতুনের স্বামী জহুরুল ইসলাম সাতক্ষীরার পল্লী বিদ্যুত সমিতিতে কমরত। অভিযোগ উঠেছে জহুরুল সাতক্ষীরায় ২য় বিয়ে করেছেন। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি লেগেই ছিলো। ঘটনার রাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয় বলে প্রতিবেশীরা জানান। গতকালই পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *