আলমডাঙ্গার নাগদহে গোলাম-বানু হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু

 

সদরুল নিপুল/অনিক সাইফুল: চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গা উপজেলার নাগদাহ ইউনিয়নের গোলাম বানু হাসপাতালের চিকিৎসা সেবার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মাত্র ৫০ টাকার ভিজিটে রোগী দেখা এবং ২ থেকে ৫ হাজার টাকায় সব ধরনের রোগীর অপারেশন করা হচ্ছে। অল্প টাকায় সব রকমের চিকিৎসা পেয়ে ইতোমধ্যে এলাকার দুস্থ মানুষের মুখে হাসি ফুটেছে।

জানা গেছে, নাগদাহ গ্রামের কৃতী সন্তান লে. কর্নেল (অব.) শামসুল আলম জোয়ার্দ্দার নিজ উদ্যোগে নাগদাহ গ্রামে এক একর জমির ওপর তার পিতা-মাতার নামে মরহুম গোলাম বানু হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর ১৯৯৪ সালে স্থাপন করা হয়। শামসুল আলমের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিলো এলাকার দুস্থ মানুষের চিকিৎসা সেবার জন্য একটি হাসপাতাল নির্মাণ করবেন। হাসপাতালের চিকিৎসার কার্যক্রম চলতি বছরের মে মাসে শুরু হয়।

হাসপাতালসূত্রে জানা যায়, ১০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে মাত্র ৫০ টাকা ভিজিটে সব ধরনের রোগী দেখা হয় এবং ২ থেকে ৫ হাজার টাকায় ওষুধসহ সব ধরনের অপারেশন করা হয়। গতকাল সন্ধ্যায় ২টি অ্যাপেনটিসাইটিস ও ১টি টিউমার রোগীর অপারেশন করা হয়। অভিজ্ঞ ডাক্তার, নার্স ও নিজস্ব বিদ্যুতসহ সব ধরনের ব্যবস্থা আছে। গতকাল সন্ধায় এক প্রশ্নের জবাবে লে. কর্নেল (অব) শামসুল আলম মাথাভাঙ্গাকে জানান, নাগদাহ গ্রামে ১৯৬৬ সালে এক ব্যক্তি বিনা চিকিৎসায় মারা যান। সেই থেকে আমার স্বপ্ন ছিলো গ্রামে একটি হাসপাতাল নির্মাণ করবো। এ ব্যাপারে এলাকার সচেতন মহল এ মহান উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.