আলমডাঙ্গার জেহালা ইউনিয়ন পরিষদের কর্ম সৃজন প্রকল্পের ব্যাপক দুর্নীতি

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার জেহালা ইউনিয়ন পরিষদের ৪ দিনের কর্ম সৃজন প্রকল্পের ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৪০ দিনের কর্ম সৃজন প্রকল্পের ৫ প্রকল্পে লেবার কম ও কাজ বন্ধ রেখে টাকা ওঠানোর পায়তারা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া ইতঃপূর্বে লেবার ছাড়া ব্যংক থেকে টাকা ওঠানোর অভিযোগ রয়েছে।

জান গেছে, আলমডাঙ্গার জেহালা ইউনিয়ন পরিষদের ৪০ দিনের কর্ম সৃজন কাজের ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ছোটপুটিমারী হাজির বাড়ি থেকে মসজিদ পর্যন্ত, পুটিমারী বাজার থেকে নতুন মসজিদ পর্যন্ত, গরচাপড়ার শহিদ মেম্বারের বাড়ি থেকে ঈদগাহ পর্যন্ত মাটি ভরাট কাজে মাত্র ১৫ জন লেবার নিয়ে কাজ করার অভিযোগে রয়েছে।

জানতে চাইলে প্রকল্পের পিআইসি আনারুল মেম্বার জানান, এখানে ১৫ লেবার থাকলেও অন্য সাইডে আরও ৮ জন লেবার আছে। কিন্তু সেখানে কোনো লেবার দেখতে পাইনি কেউ। রোয়াকুলি লোকমানের বাড়ি থেকে চান্দালীর বাড়ি পর্যন্ত প্যলা সাইড ও মাদারহুদা পিচ রাস্তা থেকে সাহাজদ্দিনের বাড়ি পর্যন্ত, রোয়াকুলি মেইন রাস্তা থেকে মহিলা মেম্বারের বাড়ি পর্যন্ত মাটি ভরাট প্রকল্পে গত শনিবার কোনো লেবার ছিলো না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ প্রকল্পের পিআইসি সানোয়ার মেম্বার বলেন, খতিয়ান সম্পর্কে কিছু বুঝো?

কৃষ্ণপুর ফকা ড্রাইভারের বাড়ি থেকে ইসরাইরের বাড়ি পর্যন্ত, বজলু পিরের বাড়ি থেকে সাফায়েতের বাড়ি পর্যন্ত, মসজিদ থেকে চান্দালীর পর্যন্ত, হিন্দুপাড়া নদীর রাস্তা মেরামত ও বেতবাড়িয়া ওহাবের বাড়ি থেকে ধোনার পুকুর পর্যন্ত মাটি ভরাট প্রকল্পে গত শনিবার লেবার বন্ধ রাখা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বেতবাড়িয়া গ্রামের মজিদ মেম্বার বলেন, কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে সেই টাকা দিয়ে কৃষ্ণপুর গ্রামের মসজিদের বালু কেনা হচ্ছে।

জেহালা বাজার থেকে রেল লাইনের পূল হতে হৈদারপুর ইদ্রিসের বাড়ি পর্যন্ত ও খাল, মুন্সিগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে মাটি ভরাট, জেহালা বাজার শরিফের বাড়ি থেকে শ্যামপাড়া পর্যন্ত, জেহালা মোহন মাস্টারের বাড়ি থেকে পরচাপড়া ঈদগাহ পর্যন্ত মাটি ভরাট প্রকল্পে কোনো লেবার পাওয়া যানি বলে অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে প্রকল্পের পিআইসি হিলালাল মেম্বার বলেন, আজ এলাকায় আমি নেই সেই কারণে কাজ বন্ধ। গোবিন্দপুর থেকে গনি মল্লিকের বাড়ি ও মেন রাস্তা, গড়গড়ি গোলামের বাড়ি থেকে জামাতের বাড়ি পর্যন্ত, সানোয়ারের বাড়ি থেকে রেজাইল খার বাড়ি পর্যন্ত, জমিরের বাড়ি থেকে তৈয়ব মাস্টারের বাড়ি পর্যন্ত মাটি ভরাটের কাজে গত শানিবার কোনো লেবার ছিলো না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে উক্ত কাজের পিআইসি হাসিবুল মেম্বার এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি।

জানতে চাইলে জেহালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল হক রোকন বলেন, আজ (গতকাল) কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। এছাড়া কর্ম সৃজন প্রকল্পের নামের তালিকায় কয়েকজন উচ্চ বৃত্ত ও ব্যবসায়ীর নাম থাকায় এলাকায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আব্দুল সাত্তার জেহালা ইউনিয়ন পরিষদের ৪০ দিনের কর্ম সৃজন প্রকল্পের ট্যগ অফিসার বলে জানা যায়, এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তাই বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *