আলমডাঙ্গার চিলাভালকীতে ঈদের নামাজের ইমাম নির্ধারণ নিয়ে দু পক্ষের মাঝে চরম উত্তেজনা

সদরুল নিপুল: আলমডাঙ্গার চিলাভালকী-জাহাপুর গ্রামের ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ পড়ানোর জন্য ইমাম নির্ধারণ নিয়ে দু পক্ষের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। গত ঈদুল ফিতরের নামাজের ইমাম নির্ধারণ করাকে কেন্দ্র করে বিরোধ বাধে। ইমাম নির্ধারণ নিয়ে দু পক্ষের মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় গত বৃহস্পতিবার আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ দু পক্ষের নিকট থেকে সংঘর্ষ না করার জন্য লিখিত প্রতিশ্রুতি নেন। পুলিশের উপস্থিতিতে ঈদের নামাজ হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

গ্রাসবাসীসূত্রে জানা গেছে, জাহাপুর বিশ্বাসপাড়ায় অবস্থিত ঈদগাহ ময়দানে নামাজ আদায় করার  জন্য ৭শ’র অধিক মানুষ এক পক্ষ হয়ে তাদের ইমাম দিয়ে ঈদের নামাজ পড়াতে ইচ্ছুক। অথচ চিলাভালকী গ্রামের বজলু ও মক্কেলের নেতৃত্বে প্রায় ৫০ জন মানুষ এক হয়ে আমাদের নির্ধারিত ইমামের পিছনে নামাজ পড়তে চাইছে না। সৃষ্ট বিরোধের জের ধরে গত ঈদুল ফিতরের নামাজ বজলু ও মক্কেলের নেতৃত্বে তাদের লোকজন নিয়ে চিলাভালকী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠচত্বরে নামাজ আদায় করে। এ ব্যাপারে আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দু পক্ষের সাথে কথা বলেছি। এক পক্ষকে সকাল ৮টায় এবং অপর পক্ষকে সকাল ৯টায় ঈদের নামাজ পড়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। দু পক্ষের কাছ থেকে সংঘর্ষে লিপ্ত না হওয়ার জন্য লিখিত নিয়েছি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *