আলমডাঙ্গার এরশাদপুরের স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: পড়ার জন্য চাপাচাপি করায় মা-ভাইয়ের ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে আলমডাঙ্গার এরশাদপুরের স্কুলছাত্রী সুমাইয়া। গতকাল শুক্রবার এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার নওলামারি গ্রামের ছেলে মিজানুর রহমান। তিনি ব্যবসাসূত্রে বেশ কিছু দিন ধরে আলমডাঙ্গার এরশাদপুর গ্রামের মাগুরাপাড়ায় সপরিবারে বসবাস করেন। তার তিন সন্তান। বড় ছেলে সাব্বির এ বছর এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। গতকাল শুক্রবার সকালে সাব্বির নিজ ঘরে বসে পড়ছিলো। সে সময় ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া তার ছোট বোন সামিরা আক্তার সুমাইয়া দুষ্টুমি করছিলো। সাব্বির ছোট বোনকে পড়তে বসার জন্য চাপাচাপি করছিলো। সে সময় তার মা’ও সুমাইয়াকে না পড়ে দুষ্টুমি করার জন্য বকা দেয়। এতে অভিমানে-রাগে-ক্ষোভে সুমাইয়া নিজ ঘরে ঢুকে ঘরের আড়াই ওড়না পেঁচিয়ে গালায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। এ সময় পরিবারের লোকজন ঠিক পেয়ে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত পার্শ্ববর্তী ক্লিনিকে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। বাদ মাগরিব নওলামারি গ্রামের গোরস্তানে তার লাশের দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।

 

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *