আলমডাঙ্গাবাসীয় পুরাতন শহীদ মিনার ভেঙে আধুনিক নির্মাণশৈলী সমৃদ্ধ নতুন শহীদ মিনার নির্মাণকাজের উদ্বোধন

এম হাফিজ/শরিফুল ইসলাম: আলমডাঙ্গায় আধুনিক নির্মাণশৈলী বিশিষ্ট শহীদ মিনার নির্মাণকাজ উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে পূরণ হতে চলেছে শহরবাসীর আরও একটি স্বপ্ন। গতকাল শনিবার আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র মীর মহিউদ্দীন আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন শহীদ মিনার নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন। দারুস সালামের পাশের মাঠে পুরাতন শহীদ মিনার ভেঙে নতুন শহীদ মিনার তৈরির সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

জানা গেছে, বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলনের সোপান বেয়ে এসেছে আমাদের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব। সে কারণে ভাষা আন্দোলনকে অনেকে রাজনৈতিক আন্দোলনের চৌমোহনা বলে আখ্যায়িত করেছেন। মহান এ ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণ ছিলো আলমডাঙ্গাবাসীরও। মরহুম শহীদুল্লাহ ওল্টু মাস্টার ও বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা মইনুদ্দীন আহমেদের নেতৃত্বে আলমডাঙ্গার ছাত্রসমাজ ভাষা আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন; কারাবরণও করেছিলেন। সে অবিনশ্বর স্মৃতির প্রতি সম্মান জানিয়ে ভাষা আন্দোলন পরবর্তী সময়ে আলমডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজের পাশে দারুস সালামের সামনের মাঠে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়। সেও প্রায় ৫৫/৬০ বছর পূর্বের কথা। অনেক আগেই সে শহীদ মিনার স্থাপনাটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ে। প্রতি বছর ২১শে ফেব্রুয়ারির পূর্বে নতুন করে পলিশ করে জরাজীর্ণ শহীদ মিনার স্থাপনাটি ব্যবহার উপযোগী করে তোলা হয়ে থাকে। গত ৫০/৬০ বছরে দেশের অনেক পরিবর্তন হয়েছে, এমনকি আলমডাঙ্গারও। কিন্তু বদলায়নি আলমডাঙ্গার শহীদ মিনারের অবস্থা। একটা আধুনিক নির্মাণশৈলীর স্থাপনাসমৃদ্ধ শহীদ মিনারের লালিত আকাঙ্খা আলমডাঙ্গাবাসীর দীর্ঘদিনের। দেরিতে হলেও সে আকাঙ্খা পূরণ হতে চলেছে। পুরাতন জরাজীর্ণ শহীদ মিনার ভেঙে সে স্থলে নতুন শহীদ মিনারের প্রায় ৫৪ ফিট লম্বা ও ৩৩ ফিট চওড়া বেদী নির্মাণ করা হবে। সিঁড়িসহ বেদী লম্বা হবে ১০৯ ফিট। প্রায় ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে এটি নির্মাণ করা হবে। আলমডাঙ্গা পৌরসভা কর্তৃক এ স্থাপনাটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

গতকাল পৌর মেয়র মীর মহিউদ্দীন আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন শহীদ মিনার নির্মাণকাজের শুভ উদ্বোধন করেন। এর আগে আলমডাঙ্গা পৌরসভার আয়োজনে নতুন শহীদ মিনার নির্মাণ বিষয়ে মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌরমেয়র মীর মহিউদ্দীনের সভাপতিত্বে উপস্থিত থেকে নিজেদের মতামত ব্যক্ত করেন মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ডাক্তার শাহাবুদ্দীন আহমেদ সাবু, মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আব্দুর রশিদ,  কাজী কামাল, কমান্ডার আব্দুল কুদ্দুস, প্রকৌশলী হায়দার আলী, সাবেক মৎস্য কর্মকর্তা মীর আব্দুল হামিদ চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা মইনুদ্দীন আহমেদ, আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি হামিদুল ইসলাম আজম, প্রভাষক মিজানুর রহমান, গিয়াস উদ্দীন, ওমর আলী মাস্টার, সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। পৌর কর্মকর্তা মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ জকুর উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক, কাউন্সিলর আহমেদ হাসিব রেজা, শরিফুল ইসলাম রিফাত, নাসির উদ্দীন, দীনেশ কুমার বিশ্বাস, কাজী সাচ্চু, আলাল উদ্দীন আহমেদ, বিএনপি নেতা ইলিয়াস হোসেন, মহাবুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published.