আমাকেও নুরুল কবিরকে টকশোতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে : আসিফ নজরুল

 

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকাবিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল বলেছেন,আমাকে ও নুরুল কবিরকেচ্যানেল আই’র টকশোতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ওদের তো সাহস নেই আমাকে,নুরুলকবিরকে ডাকার। এভাবে গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ করে ফ্যাসিবাদি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাকরা হচ্ছে। আইনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ আরও সম্প্রসারিত হবে।জাতীয়প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নাগরিক ঐক্য আয়োজিত‘নিয়ন্ত্রণমূলক সম্প্রচার নীতিমালা জনগণ মানবে না’ শীর্ষক আলোচনাসভায় তিনিএসব কথা বলেন।

আসিফ নজরুল বলেন, মুক্তিযুদ্ধের কথা বলেবাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি মিথ্যা বলে বর্তমান সরকার। মিথ্যা বলার কারণ এ সরকারঅনির্বাচিত সরকার। যখন জিএসপি বাতিল হলো তখন সরকার বললো‘এর পেছন ড. ইউনুসদায়ী।’ রানা প্লাজা ধসে পড়লো সরকার বললো‘বিএনপি পিলার ধরে টানাটানি করেছে, ‘পদ্মাসেতুর টাকা বাতিল হলো ড. ইউনুস দায়ী।’ এ রকম হাজার হাজার প্রমাণ দিতেপারবো।

তিনি বলেন,সম্প্রচার নীতিমালায় অসংখ্য স্পষ্টতাআছে। নীতিমালায় বলা আছে বন্ধু রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কিছু বলা যাবে না। বন্ধুরাষ্ট্রের সংজ্ঞা কি?তাহলে আমরা কি তিস্তার কথা বলতে পারবো না?ফেলানি,বাংলাদেশে ভারতীয়দের অবৈধ চাকরির কথা কি আমরা বলতে পারবো না?এ সব বক্তব্যকি দেশবিরোধী?

ড. আসিফ নজরুল বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনানিয়ে অনবরত মিথ্যা বলছে সরকার। মিথ্যাবাদী সরকার জনগণকে অসত্য তথ্য দিচ্ছে।অবৈধ সরকারের কোনো অধিকার নেই গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণের নীতি তৈরি করার।

Leave a comment

Your email address will not be published.