আন্দুলবাড়িয়ায় নকল বীজ বিক্রির অভিযোগ : ৪ প্যাকেট বীজ জব্দ করে মান নির্ণনয়ের প্রক্রিয়া

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া বাজারের ভাই ভাই বীজ ভাণ্ডারের বিরুদ্ধে নকল ভুট্টাবীজ বিক্রি করার অভিয়োগ উঠেছে। উপজেলার উথলী ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের ইনামুল হক এনা এ অভিযোগ তুলেছে। ক্ষতিগ্রস্দ কৃষকের এ অভিয়োগ পেয়ে ডিবি পুলিশ ভাই ভাই বীজ ভাণ্ডারে অভিযান চালিয়ে ৪ প্যাকেট বীজ জব্দ করেছে। আজ শুক্রবার জব্দকৃত বীজ কৃষি বিভাগে পাঠিয়ে পরীক্ষা করা হবে।

অভিয়োগ সুত্রে জানা গেছে, উথলী ইউনিয়নের মনোহর গ্রামের মৃত ফকির চাঁদ মণ্ডলের ছেলে কৃষক ইনামুল হক ইনা ১০ দিন আগে আন্দুলবাড়িয়া বাজারের ভাই ভাই বীজ ভাণ্ডার থেকে পেট্রোকেম বাংলাদেশ লি. কোম্পানির ভি ৯২ পাইনার ৬ কেজি ভুট্টাবীজ ২ হাজার ৫৫০টাকা দিয়ে কেনেন। কৃষক এনামুল হক এনা দাবি করছেন, তিনি আড়াই বিঘা জমিতে বীজ রোপণ করেন। কিন্তু; চারা গজায়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে বীজব্যবসায়ীর নিকট তার ক্ষতিগ্রস্তর বর্ণনা তুলে ধরে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। এ সময় বীজব্যবসায়ী তার ক্ষতিপূরণ দিতে অস্বীকার করলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ডিবি পুলিশ উপস্থিত হয়। পুলিশ এ অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৪ প্যাকেট বীজ জব্দ করে। আজ এ বীজ কৃষি বিভাগে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে বলে ডিবি কর্মকর্তা এএসআই আশরাফ মাথাভাঙ্গার এ প্রতিবেদককে জানান।

এদিকে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার নির্দেশে  উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী জিন্না ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। তিনি বলেন, প্রাথমিক তদন্তে বীজ ব্যবসায়ীর ঘরে পাইনার কোম্পানির কোনো বীজ আমি পাইনি। তবে আমি কৃষকের ক্ষেত পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। এখনও কৃষকের নিকট থেকে কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভাই ভাই বীজ ভাণ্ডারের মালিক আব্দুল খালেক সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ওই বীজ দর্শনা মেসার্স বি রহমান অ্যান্ড সন্স মালিক কামাল উদ্দিন সান্টুর নিকট থেকে কিনেছেন বলে দাবি করেছেন।

সুত্র জানান, ঘটনাটি ধামা চাপা দিতে আব্দুল খালেক বিভিন্ন মহলে দৌঁড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *