আন্দুলবাড়িয়ায় গ্রামপুলিশের মাদক ও জুয়া বিরোধী অভিয়ান অব্যাহত

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে মাদক ও জুয়া বিরোধী অভিয়ান অব্যাহত রয়েছে। গতকাল রোববার ৩য় দিনের অভিযানে গ্রামপুলিশ এলাকার কয়েকটি চিহিৃত মাদক ও জুয়ার আড্ডায় অভিযান চালিয়ে মাদকসহ দুজন সেবনকারীকে পাকড়াও করে পিটুনির দিয়েছে। গ্রামপুলিশের পিটুনি পর ধাওয়া খেয়ে মাদকব্যবসায়ী ও সেবনকারীরা আড্ডাখানা ছেড়ে দিকগ্বিক পালিয়েছে। গ্রামপুলিশদল এ সময় পরিত্যক্ত অবস্থায় ১৬টি বোতল, একটি মোবাইলফোন, একটি জামা ও একটি বাইসাইকেল উদ্ধার করেছে। উদ্ধারকৃত মদ ও মালামাল ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট জমা দিয়েছে।

এলাকাবাসী ও গ্রামপুলিশসূত্রে জানা গেছে, আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন স্পটে রয়েছে রমরমা মাদক আড্ডা। বিভিন্ন মহলের অভিযোগে পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তারের নির্দেশে দফাদার বারর আলী ওরফে বরকত উল্লার নেতৃত্বে গ্রামপুলিশ নুরু সরদার, নওজোস আলী, শুকুর আলী, রজব আলী, আবুল কাশেম, রকিবুল ইসলাম গতকাল রোববার আন্দুলবাড়িয়া মিস্ত্রিপাড়ার মৃত মসলেম আলীর ছেলে এলাকার চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী মিন্টু, মৃত মল্লিক মণ্ডলের ছেলে ফয়জুল, মৃত সোনাই মণ্ডলের ছেলে কামাল, আনছারবাড়িয়া রেল স্টেশন এলাকা ও মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের নদীর তীরে মাদক আড্ডায় অভিযান চালায়। অভিযান চলাকালে মাদকব্যবসায়ী মিন্টুর আড্ডাখানা থেকে ২৫০ মিলি মদভরা বোতল ৯, খালি বোতল ৬, ৫ লিটার মাম পানির বোতলে ১ লিটার মদ, ১টি জামা, ১টি মোবাইলফোন ও ১টি বাইসাইকেল উদ্ধার করে। এ সময় মাদকব্যবসায়ী মিন্টু, ফয়জুল, কামালসহ অন্যান সেবনকারীরা গ্রামপুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও আন্দুলবাড়িয়া গ্রামের জনুর ছেলে জাফর, আকবার আলীর ছেলে হামিদুল পালাতে পারেনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *