আজ বিজয়া দশমী : বাজে বিদায়ের সুর

চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা প্রশাসক ও এসপির পূজামণ্ডপ পরিদর্শন

 

স্টাফ রিপোর্টার: অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে শুভ ও কল্যাণ এবং সকল সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে নিরন্তর শান্তি ও সম্প্রীতির আকাঙ্ক্ষা নিয়ে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে আজ সমাপন ঘটবে হিন্দু বাঙালি সম্প্রদায়ের সবচে বড় উত্সব শারদীয় দুর্গাপূজা। আজ শুভ বিজয়া। সনাতন বিশ্বাসে-বোধনে অরুণ আলোর অঞ্জলি নিয়ে আনন্দময়ী মা উমাদেবীর আগমন ঘটে। টানা পাঁচদিন মৃন্ময়ীরূপে মণ্ডপে মণ্ডপে থেকে আজ ফিরে যাবেন কৈলাশে স্বামী শিবের সান্নিধ্যে।

মহানবমীর দিনে পুজোমণ্ডপগুলোতে ছিলো দর্শনার্থীদের ভিড়। ঘরে ঘরে ছিলো উৎসবের আমেজ। এদিনে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন চুয়াডাঙ্গা ও আলমডাঙ্গার বেশ কয়েকটি পুজোমণ্ডপ পরিদর্শন করেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক দেলোয়ার হোসাইন এবং পুলিশ সুপার আব্দুর রহিম শাহ চৌধুরীও পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন। পূজামণ্ডপ পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করেন। নিরাপত্তাসহ সার্বিক বিষয় খোঁজখবর নেন। চুয়াডাঙ্গা বড়বাজার পূজামণ্ডপ পরিদর্শনের সময় স্বাগত জানান সভাপতি কিশোর কুমার আগরওয়ালা।

আজ সোমবার বিজয়া দশমীতে ত্রয়োস্ত্রীদের দেবীবরণ ও সিঁদুর খেলার পর বিদায় নেবেন গজগামিনী হয়ে। আজ সকাল থেকেই মণ্ডপে মণ্ডপে নামবে ভক্তদের ঢল। ঢাক আর শঙ্খধ্বনি, টানা মন্ত্র পাঠ, উলুধ্বনি আর অঞ্জলি। সাথে ঢাকের বাদ্য, নাচ, সিঁদুর খেলা। ধান, দুর্বা, মিষ্টি আর আবির দিয়ে দেবীকে বিদায় জানাবেন ভক্তরা। আজ অনেকে উপবাস করবেন। একদিকে বিদায়ের সুর, অন্যদিকে উত্সবের আমেজ। গতকাল নীলকণ্ঠ, নীল অপরাজিতা ফুল ও যজ্ঞের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয় নবমী বিহিত পূজা। নবমী পূজায় যজ্ঞের মাধ্যমে দেবী দুর্গার কাছে আহুতি দেয়া হয়।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন গতকাল রোববার সন্ধ্যায় আলমডাঙ্গার বিভিন্ন মণ্ডপ পরিদর্শন করেন। এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আওরঙ্গজেব মোল্লা টিপু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান কাদির গনু, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী খালেদুর রহমান অরুণ, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু মুসা, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, মাসুদ রানা তুহিন, জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. অমল কুমার বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা ইন্দ্রজিৎ দেব শর্মা, স্টেশনপাড়া পূজামণ্ডপের তত্ত্বাবধায়ক জয় দেব বিশ্বাস, তাপস ব্যাদ, রাজকুমার ব্যাদ, বুদ্ধদেব, রনি, রাজিব, প্রকাশ ব্যাদ প্রমুখ। স্টেশনপাড়া দুর্গাপূজা মণ্ডপ, ঠাকুরপাড়া পূজামণ্ডপ, গোবিন্দপুর পূজামণ্ডপ, ঠাকুরপাড়া পূজামণ্ডপ, রথতলা পূজামণ্ডপ, ক্যানেলপাড়া পূজামণ্ডপসহ পৌরসভাধীন সবগুলো পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।  এ সময় তিনি পূজামণ্ডপের শৃঙ্খলা ও সমপ্রীতিময় পরিবেশ দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *