আকমল হত্যামামলা নিয়ে গাংনী পৌর মেয়রের সাথে ওসির মতবিনিময়

তদন্তকারী কর্মকর্তা ও হেমায়েতপুর ক্যাম্প আইসির অপসারণ দাবি

 

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরের গাংনী পৌর মেয়র আহম্মেদ আলী গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাছুদুল আলমের সাথে মতবিনিময় করেছেন। মতবিনিময়কালে ওসির মাধ্যমে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে আ.লীগ নেতা আকমল হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফারুকুল ইসলামকে পরিবর্তন ও হেমায়েতপুর ক্যাম্প আইসি মজনুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ ওঠায় তাকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার সকাল ১০টার দিকে গাংনী থানা চত্বরে মতবিনিময়সভায় তিনি এ দাবি করেন।

মেয়র আহম্মেদ আলী জানান, গাংনীর চৌগাছা গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে রাশিদুল ইসলামকে গত শনিবার পুলিশ আটক করে। তিনি ওসি, মেয়র ও তার পিতা রেজাউলকে জানিয়েছেন আকমল হত্যার ঘটনা তিনি দেখেছেন এবং চৌগাছা গ্রামের ৬ জন জড়িত থাকার কথা বলেছেন। তারা হলো আমিরুল, নাজমুল, সাহাবদ্দীন, শিপন, ডাকু ও সজিব। কিন্তু পরে মেহেরপুর পুলিশ সুপার নাহিদুল ইসলাম ঘটনা জানতে চাইলে তিনি অস্বীকার করেন। মেয়র অভিযোগ করেন, অস্বীকারের ঘটনা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার সাজানো। তিনি ওই পুলিশ কর্মকর্তার নিকট থেকে আকমল হত্যামামলা তদন্ত অন্য কর্মকর্তার নিকট হস্তান্তরের দাবি করেন। একই সাথে হেমায়েতপুর ক্যাম্প আইসির বিরুদ্ধে এলাকাবাসী বিভিন্ন অভিযোগ তুলেছে। তিনি বলেন, বিভিন্ন অপরাধের সাথে হাত রয়েছে তার। গাংনীর বিভিন্ন ইটভাটা চাঁদাবাজির কারণে বন্ধ হতে বসেছে। মেয়র আহম্মেদ আলী চাঁদাবাজদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published.