অভিশংসন বাতিল ছিলো জিয়াকে বৈধতা দেওয়ার পুরস্কার: আইনমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, সামরিক আইনকে বৈধতা দেয়ার পুরস্কারহিসেবে জিয়াউর রহমান বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদের কাছ থেকে সরিয়েনিয়েছিলেন। পরিবর্তে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলে বিচারপতিদের অপসারণেরক্ষমতা স্থানান্তর করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার সুপ্রিমকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ আওয়ামীআইনজীবী পরিষদের শোক দিবসের আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সংসদের হাতেবিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা ফিরিয়ে দেয়া প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী এসব কথাবলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ৭২ সালের সংবিধানে সংসদের হাতেই বিচারকদেরঅভিশংসনের ক্ষমতা ছিলো। পরে জিয়াউর রহমানের আমলে কিছু বিচারপতি তার সামরিকআইনকে বৈধতা দিয়ে রায় দেন। এর পুরস্কারস্বরূপ বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতাসংসদের থেকে বাতিল করে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলে করা আইন জারি করা হয়।আনিসুলহক বলেন, সংসদের হাতে কখনো কোনো বিচারপতি অভিশংসনের শিকার হননি। বরংসুপ্রিম জুডিসিয়াল কাউন্সিলের মাধ্যমে দুজন এবং অন্য মাধ্যমে সাতজনবিচারপতি অভিশংসনের মুখে পড়েছিলেন। আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কোনো বিচারপতিহেনস্তার শিকার হননি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *